Breaking News

একজনকেই বিয়ে করতে চান দুই তরুণী, টস করে নির্ধারণ হলো কনে

একই সঙ্গে দুই তরুণীর সঙ্গে প্রেম করতেন এক যুবক। অবশ্য এক প্রেমিকা অন্যজনের কথা জানতেন না। কিন্তু ত্রিমুখী এই প্রেমের কথা জানাজানি হওয়ার পর দুই প্রেমিকার কেউই প্রেমিককে ছাড়তে রাজি হননি। শেষমেষ সবাই মিলে বের করলেন এক অভিনব পদ্ধতি। টস করে নির্ধারণ করা হলো কনে।

ভারতের কর্নাটকের সকলেশপুর গ্রামে এই ঘটনা ঘটে।

গণমাধ্যমের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ২৭ বছর বয়সী এক তরুণের সঙ্গে গত বছর পাশের গ্রামের এক তরুণীর প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। কিন্তু ছয় মাস আগে অন্য আরেক তরুণীর প্রেমে পড়েন ওই তরুণ। এরপর লুকিয়ে দুজনের সঙ্গেই প্রেম চালিয়ে যাচ্ছিলেন তিনি। কিন্তু কোনো প্রেমিকাই বিষয়টি টের পাননি।

এদিকে, ওই তরুণকে তার এক আত্মীয় এক প্রেমিকার সঙ্গে দেখে ফেলেন। তিনি তরুণের বাসায় বিষয়টি জানালে তার পরিবারের সদস্যরা ওই সম্পর্ক মেনে নেয় না। পরিবারের লোকজন তাকে অন্য জায়গায় বিয়ে দিতে চান।

এ খবর পেয়ে দুই প্রেমিকার বাড়ির সদস্যরাই ওই তরুণের বাড়িতে আসে। তখনই বিষয়টি জানাজানি হয়। শেষপর্যন্ত বিষয়টি মীমাংসা করতে গ্রামের পঞ্চায়েতদের ডাকা হয়।

পঞ্চায়েতের সদস্যরা ওই তরুণকে জিজ্ঞাসা করেন তিনি কাকে বিয়ে করতে চান। কিন্তু তিনি এ ব্যাপারে নিশ্চুপ থাকেন। এরই মধ্যে ওই তরুণের এক প্রেমিকা বিষ খেয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করেন। অবশ্য প্রাণে বেঁচে যান তিনি। ওই তরুণী সুস্থ হওয়ার পর ফের গ্রামের পঞ্চায়েতের সদস্যরা বিষয়টি মীমাংসা করতে একত্রিত হন।

পঞ্চায়েতের সদস্যরা জানান, টসের মাধ্যমে ওই তরুণের কনে ঠিক করা হবে। তিন পরিবারই এ ব্যাপারে সম্মত হলে টস করেই ওই তরুণের কনে নির্ধারণ করা হয়। টস করে নির্ধারণ করা কনের সঙ্গেই ওই তরুণের বিয়ে হয়েছে বলে গণমাধ্যমের প্রতিবেদনে জানা গেছে।

তাজমহলের সামনে দাঁড়িয়ে বাগদান সারলেন বলিউড নায়ক

বর্তমান সময়ে বলিউডের অন্যতম ফিট ও সুদর্শন অভিনেতা বিদ্যুৎ। তার অসংখ্য ভক্ত-অনুরাগীর সংখ্যা অনেক। তাদের কিছুটা নৈরাশ করে বাগদাদ সেরে ফেলেছেন বিদ্যুৎ। তাও আবার সম্রাট শাহজাহানের তৈরি তাজমহলের সামনে।

পাত্রী দীর্ঘদিনের বান্ধবী নন্দিতা মাহতানি। তাহমহলের সামনে দাঁড়িয়ে প্রেয়সীর হাতে আংটি পরিয়ে ঘর বাঁধার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন বিদ্যুৎ। এ বাগদান তার অসংখ্য নারী অনুরাগীর হৃদয় ভেঙে দিয়েছে।

‘কমান্ডো’খ্যাত বলিউড অভিনেতা বিদ্যুতের সঙ্গে নন্দিতার সম্পর্ক দীর্ঘদিনের। ফিল্মফেয়ারে প্রকাশিত প্রতিবেদনে বলা হয়েছে— কোনো আড়ম্বর ছাড়া প্রায় চুপিসারেই বাগদান সেরেছেন তিনি। ২ সেপ্টেম্বর তাদের আংটিবদলের পর্ব সম্পন্ন হয়েছে।

অন্যদিকে বলিউডের পরিচিত নাম নন্দিতা মাহতানি। তার ডিজাইন করা কাপড় উঠেছে তারকাদের গায়ে। বিদ্যুতের সঙ্গে দীর্ঘদিন ধরে সম্পর্কে রয়েছে এ ডিজাইনারের। সম্প্রতি তাজমহলে বেড়াতে গিয়েছিলেন বিদ্যুৎ। সঙ্গে গিয়েছিলেন নন্দিতাও। এর পরেই আসে বাগদানের খবর।

সেখানে একসঙ্গে গিয়ে একাধিক ছবিও তোলেন তারা। ছবিতে দেখা যাচ্ছে— বিদ্যুতের আপাদমস্তক সাদা পোশাক। নন্দিতার পরনে সাদা টি-শার্ট ও ফ্লোরাল স্কার্ট। কাঁধে ছোট্ট স্লিং ব্যাগ। দুজনের চোখেই কালো চশমা। হাতে হাত রেখে ছবি তুলেছেন তারা। সেসব ছবি নেটমাধ্যমে প্রকাশ পেতেই নেটিজেনদের চোখ এড়ায়নি নন্দিতার অনামিকায় বসা বেশ বড়সড় একটি হীরের আংটি।

Check Also

সাড়ে পাঁচ ঘণ্টার বাবা

ঘটনাটা মাত্র সাড়ে পাঁচ ঘণ্টার। এই পাঁচ ঘণ্টার ঘটনা লিখতেই যখন এত শব্দ লাগল, তাহলে …

Leave a Reply

Your email address will not be published.