Breaking News

‘পাকিস্তান ক্রিকেটকে খুন করল নিউজিল্যান্ড’

সিরিজের প্রথম ম্যাচ শুরুর মাত্র কয়েক ঘণ্টা আগে নিরাপত্তার শঙ্কায় পুরো পাকিস্তান সফরই বাতিল করেছে নিউজিল্যান্ড। রাওয়ালপিন্ডিতে তিন ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজের পর লাহোরে হওয়ার কথা ছিল পাঁচ ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ।

পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড বলছে, নিরাপত্তার হুমকি হতে পারে—এমন কোনো তথ্য নেই তাদের কাছে। অন্যদিকে নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ড জানিয়েছে, তাদের সরকার এবং পাকিস্তানে থাকা তাদের নিরাপত্তা কর্মকর্তার কাছ থেকে যেমন তথ্য তারা পেয়েছে, এরপর এ সফর চালিয়ে যাওয়া সম্ভব নয়।

নিউজিল্যান্ডের হঠাৎ এমন সফর বাতিলের সিদ্ধান্ত পাকিস্তানে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট আয়োজনে নেতিবাচক প্রভাব ফেলবে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। নিউজিল্যান্ডের এমন সিদ্ধান্তে হতাশ পাকিস্তানের সাবেক ও বর্তমান ক্রিকেটাররা। সাবেক ফাস্ট বোলার শোয়েব আখতার বলেছেন, পাকিস্তান ক্রিকেটকেখু\’ন করেছে নিউজিল্যান্ড।

শোয়েব আখতার প্রথমে এটাকে ‘দুঃখজনক’ খবর বলেছেন। এরপর টুইটে লিখেছেন, ‘এইমাত্র নিউজিল্যান্ড পাকিস্তান ক্রিকেটকেখু\’ন করল।’ অবশ্য এরপরই এ সিদ্ধান্তকে ‘অপ্রয়োজনীয়’ উল্লেখ করে আশা প্রকাশ করেছেন তিনি, ‘আবারও ঘুরে দাঁড়াবে পাকিস্তান ক্রিকেট।’

সেখানেই থামেননি শোয়েব। পরে আবার আরেক টুইটে নিউজিল্যান্ডের দুর্দিনে কীভাবে পাকিস্তান পাশে দাঁড়িয়েছিল, সেটি মনে করিয়ে দিয়েছেন, ‘নিউজিল্যান্ডকে কয়েকটা ব্যাপার মনে করিয়ে দিতে চাই—ক্রাইস্টচার্চে সন্ত্রাসী হামলায় ৯ জন পাকিস্তানি মারা গেছেন। এরপরও নিউজিল্যান্ডের পাশে থেকেছে পাকিস্তান। (আবার) নিউজিল্যান্ড কর্তৃপক্ষের রূঢ় আচরণ সয়েও বেশ বাজে করোনা পরিস্থিতিতে নিউজিল্যান্ড সফর করেছে পাকিস্তান।’

এ তো গেল নিউজিল্যান্ডের জন্য পাকিস্তান কী করেছে, সেটির বর্ণনা। নিউজিল্যান্ড এভাবে কারও সঙ্গে আলোচনা না করেই সফরটা বাতিল করা নিয়েও সমালোচনা করেছেন শোয়েব, ‘হুমকিটার কোনো সত্যতা নিশ্চিত করা যায়নি, এটা নিয়ে আলোচনা করা যেত।

প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান ব্যক্তিগতভাবে নিউজিল্যান্ডের রাষ্ট্রপ্রধানের সঙ্গে কথা বলেছেন, নিশ্চয়তা দিয়েছেন, এরপরও সেসব গ্রাহ্য হয়নি। পাকিস্তান এর আগে দক্ষিণ আফ্রিকা, বাংলাদেশ, ওয়েস্ট ইন্ডিজ, শ্রীলঙ্কা ও জিম্বাবুয়ে দলকে নিরাপদে আতিথ্য দিয়েছে, পিএসএলও আয়োজন করেছে।’

২০০৯ সালে লাহোরে শ্রীলঙ্কা ক্রিকেটার ও ম্যাচ অফিশিয়ালদের ওপর সন্ত্রাসী হামলার পর থেকে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট আয়োজন থেকে নির্বাসনে গিয়েছিল পাকিস্তান। সাম্প্রতিক সময়ে আন্তর্জাতিক দলগুলো আবারও সফর শুরু করেছে দেশটিতে।

আগের দলগুলোর সফরের কথা বলেছেন পাকিস্তান এ সময়ের দলের ফাস্ট বোলার শাহিন শাহ আফ্রিদিও, ‘নিজের হতাশা প্রকাশের ভাষা নেই আমার। আমাদের নিরাপত্তা বাহিনী বিশ্বের অন্যতম সেরা। শুধু তা-ই নয়, অনেক বিদেশি দলই সাফল্যের সঙ্গে নির্বিঘ্নে পাকিস্তান সফর করে গেছে। পাকিস্তান এবং বিশ্বজুড়ে ক্রিকেটপ্রেমীদের হতাশাটা বুঝতে পারছি আমি।’

অন্যদিকে পাকিস্তানে সব সময়ই নিজেকে নিরাপদ মনে করেছেন বলে জানিয়েছেন সাবেক ওয়েস্ট ইন্ডিজ অধিনায়ক ড্যারেন স্যামি, ‘ঘুম থেকে উঠেই নিরাপত্তার কারণে পাকিস্তান-নিউজিল্যান্ড সিরিজ স্থগিতের খবরটা শুনে হতাশ হলাম। ছয় বছর ধরে পাকিস্তান সফর করে খেলার অভিজ্ঞতাটা আমার জন্য বেশ উপভোগ্য ছিল। সেখানে সব সময়ই নিরাপদ বোধ করেছি আমি। এটা পাকিস্তানের জন্য বড় একটা আঘাত।’

Check Also

কলেজ অধ্যক্ষকে নেতার চড় মারার মুহূর্ত ধরা পড়ল ক্যামেরায়

কলেজ অধ্যক্ষকে চড় মারছিলেন এক নেতা। একবার নয়, একাধিকবার। আর সেই মুহূর্তটি ধরা পড়েছে ক্যামেরায়। …

Leave a Reply

Your email address will not be published.