কিশোরীকে বাসস্ট্যান্ডে বসিয়ে রেখে উধাও প্রেমিক

ফরিদপুরের এক কিশোরীকে (১৬) প্রেমের ফাঁদে ফেলে নওগাঁয় নিয়ে এসে বাসস্ট্যান্ডে রেখে পালিয়েছেন রাজিব (২২) নামের এক যুবক। পরে ৯৯৯ নম্বরে ফোন পেয়ে ওই কিশোরীকে উদ্ধার করেছে নওগাঁ সদর থানা পুলিশ। বর্তমানে মেয়েটি পুলিশ হেফাজতে রয়েছে।

শুক্রবার (১৭ সেপ্টেম্বর) দুপুরে এ ঘটনা ঘটে। কিশোরীর বাড়ি ফরিদপুরের রাজাবড়ি থানার কুশুমদী গ্রামে।

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, জেলার আত্রাই উপজেলার যুবক রাজিবের সঙ্গে ওই কিশোরীর মোবাইল ফোনে পরিচয় হয়। এক পর্যায়ে তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। বিয়ের প্রলোভনে গত ১০ সেপ্টেম্বর রাজিব তাকে তার গ্রামের বাড়িতে নিয়ে আসেন।

শুক্রবার সকালে তারা ঢাকায় যাবেন বলে আত্রাই থেকে নওগাঁর ঢাকা বাসস্ট্যান্ডে আসেন। পরে বাসস্ট্যান্ডের শাহ ফতেহ আলী কাউন্টারে কিশোরীকে বসিয়ে রেখে পালিয়ে যান রাজিব। দীর্ঘ সময় রাজিব না আসায় কান্না শুরু করে মেয়েটি। এক পর্যায়ে স্থানীয়রা তার কাছে ঘটনা জানতে চাইলে সে সবকিছু খুলে বলে।

স্থানীয়রা বিষয়টি জাতীয় জরুরি সেবা ৯৯৯ নম্বরে ফোন করে জানান। পরে নওগাঁ সদর থানার সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই) আনিসসহ সঙ্গীয় ফোর্স মেয়েটিকে উদ্ধার করে থানা নিয়ে যান।

কিশোরী বলে, ‘দুজনে ঢাকা যাবো বলে বাসস্ট্যান্ডে আসি। কিন্তু আমাকে রেখে রাজিব পালিয়ে গেছে। তার ফোনটাও বন্ধ পাচ্ছি। আত্রাই থানার নাম জানলেও রাজিবের গ্রামের বাড়ির নাম জানি না। আমি বাড়িতে কিছু না বলে পালিয়ে এসেছি।’

নওগাঁ সদর থানার ওসি (তদন্ত) রাজিবুল ইসলাম বলেন, ৯৯৯ নম্বরে কল পেয়ে মেয়েটিকে উদ্ধার করা হয়েছে। বর্তমানে সে থানায় আছে। তার পরিবারের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা চলছে। তবে মেয়েটি আদৌ সত্য বলছে কি-না তা যাচাই-বাছাই করা হচ্ছে।

‘বাংলাদেশ নয়, এটা ইন্ডিয়া হিন্দিতে বলুন’

অনলাইনেই নামি ব্র্যান্ডের একটি চশমার অর্ডার দিয়েছিলেন ভারতীয় পরিচালক সত্রাজিৎ সেন। তবে কয়েকদিন পর চশমার পাওয়ারে সমস্যা বুঝতে পেরে তা ফেরত দিতে গিয়েছিলেন তিনি। এরপরেই বাধে বিপত্তি। ডেলিভারি বয়কে ফোনে সমস্যাটি বুঝিয়ে দেওয়ার সময় অপর প্রান্ত থেকে তিনি পরিচালককে একপ্রকার নির্দেশ দেন হিন্দিতে কথা বলার জন্য। খোদ কলকাতায় তাকে এমন সমস্যার সম্মুখীন হতে হবে সেটা তিনি চিন্তা করতে পারেননি। এজন্য তিনি রীতিমতো হতবাক ও ক্ষুব্ধ।

ডেলিভারি বয়ের আচরণে ক্ষুব্ধ হয়ে একাধিক টুইট করেছেন জাতীয় পুরস্কারপ্রাপ্ত এই পরিচালক-প্রযোজক। সঙ্গে সেই নামি চশমার ব্র্যান্ডকেও টুইটে ট্যাগ করেছেন তিনি। তিনি ডেলিভারি বয়ের সঙ্গে ঘটে যাওয়া ঘটনার বিবরণ দিয়েছেন টুইটে। তিনি ওই ডেলিভারি বয়কে বাংলায় সমস্যাটা বুঝিয়ে দেওয়ার সময় নাকি তিনি ফোনের ওপর থেকে বলে ওঠেন, ‘এটা বাংলাদেশ নয়, ইন্ডিয়া, আপনার হিন্দি বলতে পারা উচিত।’

পরিচালকের টুইট চোখে পড়তেই তার সমর্থনে সৃজিত মুখোপাধ্যায়, পরমব্রত চট্টোপাধ্যায়, আবির চট্টোপাধ্যায়ের মতো ব্যক্তিরাও টুইটের রিপ্লাই দিয়েছেন। তারাও ব্যাপারটা নিয়ে অত্যন্ত বিরক্ত ও ক্ষুব্ধ। টুইটের জবাবে সৃজিত লেখেন, ‘কাঁচা বাংলায় উত্তর দিয়েছিস তো সত্রাজিৎ?’

পরমব্রত চট্টোপাধ্যায় কোনো লুকোচুরি না করে সোজাসুজি কমেন্ট করেছেন, ‘খিস্তিটা কাঁচা বাংলায় হতে হবে তবে আনন্দ!’

আবির জবাব দিয়েছেন ‘ফেলুদা’র সেই বিখ্যাত সংলাপের ভঙ্গিতে, ‘আপনি হিন্দি চালিয়ে যেতে পারেন বেশ লাগছে।’ সঙ্গে ঘটনা কতদূর গড়ালো সেই বিষয়ে আপডেট চেয়েছেন তিনি।

তবে শুধু তারকারাই নয়, সত্রাজিতের এই টুইটে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন নেটিজেনরাও। পরিচালককে সমর্থন দিয়ে তার টুইটে রিটুইট করে চলেছেন তারা।

Check Also

টোল দিতে হবে না পোস্তগোলা-ধলেশ্বরী-আড়িয়াল খাঁ সেতুতে

আগামী ১লা জুলাই থেকে পোস্তগোলা-ধলেশ্বরী-আড়িয়াল খাঁ সেতুতে টোল দিতে হবে না বলে জানিয়েছেন সড়ক ও …

Leave a Reply

Your email address will not be published.