বিশ্ববিদ্যালয় খোলা নিয়ে যা বললেন শিক্ষামন্ত্রী

দেশের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে এখন স্বাস্থ্যবিধি মানা হচ্ছে। এ ছাড়া যেসব বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের রেজিস্টেশন করা হয়েছে, তাদের কথা ভিন্ন; কিন্তু যাদের রেজিস্টেশন করা হয়নি, তারা রেজিস্টেশন করবে। তবে বিশ্ববিদ্যালয় খোলার বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেবে বিশ্ববিদ্যালয়ের সিন্ডিকেট সদস্যরা বলে জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি।

রোববার বেলা সাড়ে ১১টায় যাত্রাবাড়ী আইডিয়াল স্কুল অ্যান্ড কলেজ পরিদর্শনে এসে তিনি এ কথা বলেন। পরিদর্শনে এসে তিনি শিক্ষার্থীদের সঙ্গে স্বাস্থ্যবিধি নিয়ে কথা বলেন।

স্কুল পরিদর্শন শেষে তিনি গণমাধ্যমকর্মীদের বলেন, স্কুলের পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা রয়েছে। সবাই মাস্ক পরেছে।

তিনি বলেন, আমরা আশা করছি সামনের দিনগুলোতে দেশের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে অভিভাবক-শিক্ষার্থীরা ভেতরে-বাইরে সবাই স্বাস্থ্যবিধি শতভাগ মেনে চলবে। এখন গ্রামাঞ্চলগুলোতেও খুব ভালোভাবে স্বাস্থ্যবিধি মানা হচ্ছে। আমাদের কাছে এসব তথ্য আছে।

এ সময় সাংবাদিকদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, আপনাদের দেওয়া রিপোর্টের ভিত্তিতে জানতে পেরেছি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে এখন গুরুত্বসহকারে স্বাস্থ্যবিধি মানার চেষ্টা চলছে। তবে বহুদিনের অভ্যাস পরিবর্তন অল্প সময়ে আসবে না। একটা সময় আসবে সবাই অভ্যস্ত হবেন এবং মানবেন। এ ক্ষেত্রে সবার প্রচেষ্টাও আছে। শুধু করোনার জন্যই নয়, একটি সুষ্ঠু পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন দেশ গড়ে তুলতে সবাইকে সচেতনভাবে স্বাস্থ্যবিধি মানতে হবে।

এদিকে পুষ্টি, স্বাস্থ্য, পরিবেশ ও মানসিক স্বাস্থ্য— এসব বিষয় নিয়ে ইতোমধ্যে শিক্ষকদের প্রশিক্ষণ দেওয়া শুরু করেছি। শিক্ষার্থীদের মধ্যেও পরিচ্ছন্নতার একটি অভ্যাস গড়ে তোলা হয়েছে। আমরা আশাবাদী আগামী দিনগুলোতে এগুলোর সত্যিকারের সঠিক প্রতিফলন সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে দেখতে পাব।

ডা. দীপু মনি বলেন, আমাদের চোখ সব জায়গায় যাবে না। সংবাদকর্মীদের চোখ সব জায়গায় রয়েছে। এ ছাড়া সারা দেশে আপনাদের প্রতিনিধিরা ছড়িয়ে-ছিটিয়ে আছেন। যেখানে যা কিছু অনিয়ম দেখবেন, সেগুলো তুলে ধরবেন। সেগুলো সংস্কারের দায়িত্ব আমাদের। এ ছাড়া পর্যবেক্ষণ শেষে আগামী দুই-তিন দিনের মধ্যে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোর সার্বিক পরিস্থিতি ব্রিফিং করে আপনাদের জানাতে পারব।

তিনি বলেন, আজকে প্রকাশ্যে যাত্রাবাড়ী আইডিয়াল স্কুল অ্যান্ড কলেজে চলে এসেছি, আগামীকাল থেকে কাউকে না জানিয়ে যে কোনো স্কুলে উপস্থিত হয়ে পরিদর্শনে যাব। সেসব স্কুল অ্যঅন্ড কলেজে কোনো ধরনের অনিয়ম কিংবা স্বাস্থ্যবিধি না মানা হলে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান নেহাল উদ্দিন আহম্মেদ, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক ও যাত্রাবাড়ী আইডিয়াল স্কুল অ্যান্ড কলেজ গভর্নিং বডির সভাপতি রিয়াজ উদ্দিন রিয়াজ, প্রতিষ্ঠানটির অধ্যক্ষ মরিয়ম বেগমসহ সব শিক্ষক, শিক্ষিকা, ছাত্রছাত্রী ও অভিভাকবৃন্দ।

Check Also

সিলেটে পানি কমছে, তবে ছড়িয়ে পড়েছে দুর্গন্ধ

সিলেট নগর ও এর আশপাশের এলাকায় বন্যার পানি অনেকটাই কমেছে। তবে এখন রাস্তাঘাটে জমে থাকা …

Leave a Reply

Your email address will not be published.