পাকিস্তান নিরাপদ, প্রমাণ করতে দেশটিতে যাচ্ছেন গেইল!

নিরাপত্তাজনিত কারণ দেখিয়ে পাকিস্তানের বিপক্ষে সিরিজ না খেলেই দেশে ফিরে গেছে নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট দল। তারা একতরফাভাবে এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে এবং পিসিবির সঙ্গে কোনো আলোচনা করেনি বলে অভিযোগ। এমন পরিস্থিতিতে নিজেদের হতাশার কথা ব্যক্ত করছেন পাকিস্তানের সাবেক-বর্তমান ক্রিকেটার থেকে শুরু করে পিসিবির কর্তাব্যক্তিরা।

এবার পাকিস্তানের পাশে দাঁড়ালেন ওয়েস্ট ইন্ডিজের কিংবদন্তি ক্রিস গেইল। শনিবার (১৮ সেপ্টেম্বর) দিবাগত রাতে এক টুইট বার্তায় বলেছেন, ‘আমি আগামীকাল পাকিস্তান যাচ্ছি, কে কে আমার সঙ্গে যাবে?’

টুইটটি যে পাকিস্তানকে ক্রিকেটের জন্য নিরাপদ প্রমাণ করতেই বলা, তা যে কেউই বলে দিতে পারবে। কিন্তু আসলেই কী গেইল পাকিস্তান যাচ্ছেন? সেটার উত্তর সম্ভবত ‘না’।

কারণ, আজ থেকে শুরু হতে যাওয়া আইপিএলের ১৪তম আসরের দ্বিতীয়াংশে খেলতে বর্তমানে সংযুক্ত আরব আমিরাতে অবস্থান করছেন তিনি। পাঞ্জাব কিংসের হয়ে মাঠে নামার সম্ভাবনা তার প্রবল। আগামী ২২ সেপ্টেম্বর রাজস্থান রয়্যালসের মুখোমুখি হবে তার দল। এমন অবস্থায় বিভিন্ন বিধি নিষেধের কারণে গেইলের পাকিস্তানে যাওয়াটা একরকম অসম্ভব।

তবে এই এক টুইটের মাধ্যমেই তিনি পাকিস্তানসহ বিশ্বের অসংখ্য ক্রিকেট সমর্থকের হৃদয় জয় করে নিয়েছেন।

যে খবরে পাকিস্তান সফর বাতিল করল নিউজিল্যান্ড
১৮ বছর পর দ্বিপাক্ষিক সিরিজ খেলতে পাকিস্তান সফরে গিয়েও খেলতে পারেনি নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট দল।

শুক্রবার রাওয়ালপিন্ডিতে ওয়ানডে সিরিজ শুরুর ঠিক দেড় ঘণ্টা আগে নিরাপত্তা হুমকি মনে করে হঠাৎ করেই সফর বাতিল করে নিউজিল্যান্ড।

কিউইদের সফর বাতিলের পেছনে অন্য কারও হাত আছে কিনা তা খতিয়ে দেখতে মাঠে নেমেছে পাকিস্তান। পাকিস্তানের সংবাদমাধ্যম দ্য নিউজ ইন্টারন্যাশনাল জানিয়েছে, ভারতের এক পত্রিকার মাসখানেক আগের পুরনো খবরে ভয় পেয়ে সফর বাতিল করেছে নিউজিল্যান্ড।

দ্য নিউজ ইন্টারন্যাশনাল লিখেছে- গত ২১ আগস্ট ভারতের সংবাদপত্র দ্য সানডে গার্ডিয়ান নিউজিল্যান্ডের পাকিস্তান সফর বাতিল করার চেষ্টা করেছিল। তখন তারা লিখেছিল- নিউজিল্যান্ডের ক্রিকেট দলের পাকিস্তান সফর,

যেটি সেপ্টেম্বরে হবে, সেটিকে ঘিরে সন্ত্রাসী হামলার শঙ্কা জাগছে। ওই নড়বড়ে অঞ্চলে সজাগ থাকা অনেক সন্ত্রাসী গ্রুপের একটি সফরকারী ক্রিকেটারদের ওপর হামলা চালাতে পারে।

ভারতের দ্য সানডে গার্ডিয়ান লিখেছিল- পাকিস্তানের সংগঠন তেহরিক-ই-তালেবান পাকিস্তানের সাবেক মুখপাত্র এহসানউল্লাহ এহসান বলেছেন- আইএসের (জঙ্গি সংগঠন ইসলামিক স্টেট) পাকিস্তান শাখা নিউজিল্যান্ডের খেলোয়াড়দের ওপর হামলা চালানোর প্রস্তুতি নিচ্ছিল।

তবে নিউজিল্যান্ডের ক্রিকেট নিয়ন্ত্রক সংস্থার (এনজেডসি) জনসংযোগ বিভাগের ব্যবস্থাপক রিচার্ড বুক তখন সানডে গার্ডিয়ানকে বলেছিলেন- নিরাপত্তার ব্যাপারে পরামর্শক দলের পরামর্শ মেনেই সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

নিউজিল্যান্ডের পাকিস্তান সফর বাতিলের পেছনে ভারতের যোগসাজশ দেখছে পাকিস্তানের দ্য নিউজ ইন্টারন্যাশনাল পত্রিকা। তারা লিখেছে- এ মুহূর্তে ইসলামাবাদে অবস্থান করা একজন বিদেশি ভারতের হয়ে কাজ করছেন, যেন নিউজিল্যান্ডের পাকিস্তান সফর বাতিল হয়ে যায়।

নিরাপত্তা নিয়ে শঙ্কার ভুয়া খবর নিউজিল্যান্ডের দলের কাছে ছড়িয়ে দিয়ে তিনি কাজটা করেন বলে লিখেছে দ্য নিউজ ইন্টারন্যাশনাল।

নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিউজিল্যান্ড দলের প্রত্যাশামাফিক ছিল। কিন্তু ওই কূটনীতিক নিউজিল্যান্ড দলের কাছে ভুয়া নিরাপত্তাশঙ্কার কথা পৌঁছে দিয়ে সফরকারীদের মনে ভয় ঢুকিয়ে দিয়ে থাকতে পারেন বলে ধারণার কথা লিখেছে দ্য নিউজ ইন্টারন্যাশনাল।

Check Also

নেইমারের চাওয়া, ব্রাজিলের ১০ নম্বর উঠুক রদ্রিগোর গায়ে

কাতার বিশ্বকাপে ব্রাজিলের ফরোয়ার্ড লাইনটা একটু ভেবে দেখুন—নেইমারের সঙ্গে রিয়াল মাদ্রিদের জুটি রদ্রিগো ও ভিনিসিয়ুস …

Leave a Reply

Your email address will not be published.