৪ সন্তান নিয়ে জুসের সঙ্গে মায়ের বি’ষ’পান! দিলেন দরজা বন্ধ করে

লক্ষ্মীপুরে চার সন্তানসহ মা মাহমুদা বেগম জুসের সঙ্গে বিষপান করে আত্মহত্যার চেষ্টা করেছেন। তাদের উদ্ধার করে সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। পারিবারিক কলহের জের ধরে শনিবার (১৮ সেপ্টেম্বর) রাত ১১টার দিকে পৌরসভার ১২নম্বর ওয়ার্ডের আবিরনগর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

স্থানীয় সূত্র জানায়, লক্ষ্মীপুর শহরের পোস্ট অফিস সড়কের বাংলাদেশ মেডিক্যাল নামের ফার্মেসির মালিক নাদিম মাহমুদ ও তার স্ত্রী মাহমুদা বেগমের পারিবারিক কলহ চলে আসছে।

এতে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে প্রায়ই ঝগড়া লেগে থাকতো। এর জের ধরে ঘটনার সময় মাহমুদা ঘরের দরজা বন্ধ করে তিন ছেলে ও এক মেয়েকে জুসের সঙ্গে বিষ মিশিয়ে খাওয়ায়। এ সময় নিজেও (মাহমুদা) বিষপান করে মৃত্যু নিশ্চিত করতে কেরোসিন ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেন। কেউ যাতে বাইরে যেতে না পারেন তাই দরজা বন্ধ করে দেন তিনি।

মাহমুদার ছেলেরা হলেন জুলহাস (১০) মর্তুজা (৭) আরমান (৫) ও মেয়ে পান্নাকে (৬)। শিশুদের চিৎকারে আশপাশের লোকজন এগিয়ে এসে ঘরের দরজা ভেঙে তাদের উদ্ধার করে সদর হাসপাতালে ভর্তি করে।

মাহমুদার মেয়ে পান্না জানিয়েছে, তার মা রাতে সবাইকে জুস খাইয়েছে। এরপর কি হয়েছে সে বলতে পারবে না।

নাদিম মাহমুদ বলেন, স্ত্রীর কারণে আমাকে অশান্তিতে থাকতে হয়। সে সবসময় আমাকে টাকার চাহিদা দেখায়। প্রায়ই সন্তানদের নিয়ে আত্মহত্যার হুমকি দিত। হঠাৎ সন্তানদের নিয়ে বিষপান করে আত্মহত্যার চেষ্টা করে।

লক্ষ্মীপুর সদর হাসপাতালের চিকিৎসক ডা. কমলাশীষ জানান, বিষক্রিয়া নিয়ে মা-সন্তানদের হাসপাতালে চিকিৎসা চলছে। তাদের আশঙ্কামুক্ত হতে ৭২ ঘণ্টা সময় অপেক্ষা করতে হবে।

লক্ষ্মীপুর শহর পুলিশ ফাঁড়ির পরিদর্শক (তদন্ত) ইমদাদুল হক বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করা হয়েছে। পারিবারিক কলহের জের ধরে এ ঘটনা ঘটেছে। তদন্ত শেষে প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Check Also

সিলেটে পানি কমছে, তবে ছড়িয়ে পড়েছে দুর্গন্ধ

সিলেট নগর ও এর আশপাশের এলাকায় বন্যার পানি অনেকটাই কমেছে। তবে এখন রাস্তাঘাটে জমে থাকা …

Leave a Reply

Your email address will not be published.