২০০ কোটি নেবেন না সামান্থা

এত দিন গুঞ্জন ছিল বিবাহবিচ্ছেদ নিয়ে। অবশেষে সেই গুঞ্জন সত্যি হলো। বিচ্ছেদ ঘোষণা করেছেন নাগা চৈতন্য এবং সামান্থা আক্কিনেনি। দু’জনেই নেটমাধ্যমে বিবৃতি জারি করে নিজেদের সিদ্ধান্তের কথা জানিয়েছেন।

এই বিচ্ছেদের পর সামান্থা নাকি ৫০ কোটি রুপি খোরপোশ পেতে পারতেন নাগার থেকে। তবে এখন শোনা যাচ্ছে, ৫০ কোটি নয়, সামান্থাকে ২০০ কোটি রুপি খোরপোশ দেওয়ার কথা বলা হয়েছিল। কিন্তু সামান্থা বিয়ে ভাঙার কারণে নাগার থেকে সেই টাকা নিতে একেবারেই নারাজ। সামান্থা জানিয়েছেন, নাগার থেকে তিনি একটি টাকাও নেবেন না।

আনন্দবাজার পত্রিকার এক প্রতিবেদনে বলা হয়, সামান্থার ঘনিষ্ঠ একজন জানিয়েছেন- নায়িকা এই সম্পর্কটা থেকে শুধু বন্ধুত্ব এবং ভালবাসা চেয়েছিল। অথচ বিয়েটাই ভেঙে গেল। তাই সামান্থা একটা টাকাও নেবে না।

২০১০ সালে একটি ছবি করতে গিয়ে তাদের প্রেমের গল্প শুরু হয়েছিল। দীর্ঘদিন সম্পর্কে থাকার পর ২০১৭ সালে গোয়ায় বিয়ে করেছিলেন তারা। তবে বিয়ে ভেঙে গেলেও থেকে যাবে বন্ধুত্ব। বিবৃতি জারি করে এ কথা জানিয়েছেন নাগা এবং সামান্থা।

আরো পড়ুনঃ শ্রাবন্তীর রোশনকে ডিভোর্সে ‘শারীরিক কারণ’

কলকাতার জনপ্রিয় অভিনেত্রী শ্রাবন্তী চ্যাটার্জির তৃতীয় সংসার ভেঙে গেছে প্রায়। ডিভোর্স চেয়ে মামলা দায়ের করেছেন। সেই মামলা রয়েছে আদালতে।

অচিরেই রোশন সিংয়ের সঙ্গে তার বিচ্ছেদ কার্যকর হয়ে যাবে। যদিও রোশন আগে থেকেই সংসার করতে চাইছেন। কিন্তু কোনোভাবেই এই সংসার টিকিয়ে রাখতে রাজি নন শ্রাবন্তী।

ভালোবেসে রোশন সিংকে বিয়ে করেছিলেন শ্রাবন্তী। বিয়ের পর তাদের ঝলমলে সুখের সংসার ছিল। দুজনের পরিবারের মধ্যেও ছিল দারুণ বন্ধন। কিন্তু হঠাৎ কী এমন হলো, যার কারণে রোশনের সঙ্গে থাকতেই চাইছেন না এ অভিনেত্রী?

নির্দিষ্ট কোনো কারণ জানা যায়নি। তবে রোশন সিং এক সাক্ষাৎকারে বলেছেন, যখন শ্রাবন্তীর সঙ্গে প্রেম করতাম, তখন শরীরের প্রচুর যত্ন নিতাম। সংসার শুরু করার পর আমি মোটা হয়ে গিয়েছিলাম।

আমি নিজের অস্তিত্ব হারিয়ে ফেলেছিলাম। যে রোশনকে শ্রাবন্তী পছন্দ করেছিল, সেই রোশন আর আমি ছিলাম না। এটার জন্য ওর খারাপ লাগছিল হয়তো।

গত বছরের লকডাউনের সময়ও জমিয়ে সংসার করেছিলেন রোশন-শ্রাবন্তী। কিন্তু আচমকা শ্রাবন্তীর মধ্যে পরিবর্তন দেখতে পান রোশন। তিনি বলেন, আমি বুঝতে পারছিলাম, ও স্পেস চাইছে। আলাদা থাকতে চাইছে। আমি ভেবেছিলাম, কিছুদিন একটু আলাদা থাকি আমরা। কিন্তু সেই স্পেসে অন্য কেউ চলে আসবে, ভাবতে পারিনি।

জানা যায়, শ্রাবন্তী এখন ব্যবসায়ী অভিরূপ নাগ চৌধুরীর সঙ্গে প্রেম করেন। তাদের বসবাস একই আবাসনে। প্রায়শই একান্তে সময় কাটান তারা। কিছুদিন আগে অভিরূপের জন্মদিনে নিজের বাসায় ডেকে কেক কাটেন শ্রাবন্তী। এমনকি একটি হিরের আংটিও উপহার দেন তাকে।

উল্লেখ্য, শ্রাবন্তী প্রথম বিয়ে করেছিলেন নির্মাতা রাজীব বিশ্বাসকে। ২০০৩ সালে বিয়ের পর ২০১৬ সাল পর্যন্ত তারা সংসার করেন। এরপর বিবাহবিচ্ছেদ করে একই বছর মডেল কৃষাণ বিরাজের সঙ্গে গাঁটছড়া বাঁধেন অভিনেত্রী। তবে এক বছর না যেতেই সংসারটি ভেঙে যায়। এরপর ২০১৯ সালে রোশন সিংকে বিয়ে করেছিলেন শ্রাবন্তী।

Check Also

সাড়ে পাঁচ ঘণ্টার বাবা

ঘটনাটা মাত্র সাড়ে পাঁচ ঘণ্টার। এই পাঁচ ঘণ্টার ঘটনা লিখতেই যখন এত শব্দ লাগল, তাহলে …

Leave a Reply

Your email address will not be published.