Breaking News

অভিমানী অধিনায়ক বনাম কৌশলী অধিনায়ক

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের মঞ্চে গতকাল রবিবার খেলা ছিল এশিয়ার চার দলের মাঝে। প্রথম ম্যাচে শ্রীলঙ্কার কাছে হেরে গেছে বাংলাদেশ। এর চার ঘণ্টা পরেই বিশ্বকাপের মঞ্চে প্রথমবার পাকিস্তানের কাছে হেরেছে ভারত।

দল হারলে অধিনায়কদের চাপের মুখে পড়তে হবে তা সবাই জানে। কাল অবশ্য সংবাদ সম্মেলনে এসেছিলেন মুশফিকুর রহিম। তাই ঝড়টা তার ওপর দিয়েই গেছে। অন্যদিকে পাকিস্তানের কাছে লজ্জাজনক হারের ঝড় সংবাদ সম্মেলনে এসে সামলেছেন বিরাট কোহলি।

স্কটল্যান্ডের কাছে প্রথম রাউন্ডে হারের পর বেজায় চটেছিলেন বিসিবি প্রধান নাজমুল হাসান পাপন। তিনি হারের দায় চাপান তিন সিনিয়রের ওপর। এরপর পাপুয়া নিউগিনিকে হারিয়ে সুপার টুয়েলভ নিশ্চিতের পর মাহমুদউল্লাহ এর জবাবে বলেন, ‘আমরাও মানুষ।’

এখানেই থেমে থাকেননি। পরে বিসিবি সভাপতি ফের বলেন, ‘সমর্থকরাও মানুষ, বিসিবি কর্মকর্তারাও মানুষ।’ গতকাল শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ম্যাচ শেষে মুশফিকুর রহিমকেও এমন প্রশ্নের মুখোমুখি হতে হয়েছে।

মুশফিকও ছেড়ে কথা বলেননি। সমালোচকদের আয়নায় মুখ দেখতে বলেছেন। এর চার ঘণ্টা পরেই সংবাদ সম্মেলন করেন বিরাট কোহলি। তাকে প্রশ্ন করা হয় দল নির্বাচন নিয়ে।

একজন জানতে চান, গোল্ডেন ডাক মারা রোহিত শর্মার জায়গায় ইশান কিশানকে খেলানো হয়নি কেন? কোহলির রেগে যাওয়াই উচিত ছিল। রোহিত শর্মা পরীক্ষিত ওপেনার। তাকে বাদ দেওয়ার কথা ভাবতেই পারে না ভারতীয় টিম ম্যানেজম্যান্ট। কিন্তু কোহলি রাগলেন না।

ভারত অধিনায়ক সেই সাংবাদিকের দিকে অবাক হয়ে তাকালেন। মজার মুখভঙ্গি করলেন। এরপর হাসতে হাসতে বললেন, ‘রোহিত শর্মা! আপনি আসলে দল নির্বাচন নিয়ে কী ভাবছেন? আমি তো একজন খেলোয়াড় হিসেবে দল সম্পর্কে জানি। আপনি কী ভাবছেন?’

সাংবাদিক তখন বলেন, ‘আমি আপনার মত জানতে চাচ্ছি, নিজে জবাব দিতে চাচ্ছি না।’ কোহলি তাকে থামিয়ে বলেন, ‘আপনি কি বলতে চান টি-টোয়েন্টি থেকে রোহিত শর্মাকে বাদ দেব? আপনি ভুলে গেছেন আমাদের শেষ ম্যাচের কথা? অবিশ্বাস্য!’

এটা বলে হাসতে হাসতে মুখ ঢেকে ফেলেন কোহলি। এরপর বলেন, ‘আপনার যদি বিতর্ক করার ইচ্ছা থাকে তাহলে আগে থেকে বলবেন। আমি আপনাকে জবাব দেব।’ বেচারা সাংবাদিক এরপর আর কোনো কথা বলেননি।

কোহলির পুরো সংবাদ সম্মেলনের এই অংশটুকুর ভিডিও ভাইরাল হয়ে গেছে। ক্রিকেটপ্রেমীরা বলছেন, অধিনায়কদের এমন কৌশলীই হতে হবে। সমালোচনা আর প্রশ্নবাণের সামনে দিয়ে কৌশলে বের হয়ে আসতে হবে, আবেগী হয়ে নয়। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে আবেগ মূল্যহীন।

Check Also

এবার ম্যারাডোনার ১৯৮৬ বিশ্বকাপ ফাইনালের জার্সিও নিলামে

রেকর্ডটার এখনো দুই মাসও হয়নি। ক্রীড়াঙ্গনের স্মারক বিক্রির সব রেকর্ড ভেঙে প্রায় ৯০ লাখ ডলারে …

Leave a Reply

Your email address will not be published.