৫৩ লাখ টাকা নিয়ে অটোচালকের সঙ্গে উধাও কোটিপতির স্ত্রী!

রাত হয়ে গেল। তবু বাড়ি ফিরলেন না স্ত্রী। তখনও স্বামী ভাবতে পারেননি এমন ঘটনা দেখতে হবে। চিন্তা ছিল বাড়ি থেকে গায়েব হয়ে যাওয়া লাখ টাকা নিয়েও।

সন্দেহ হয়েছিল। তাই থানায় ডায়েরি করেছিলেন। সেই সন্দেহই শেষে সত্যি হল। অটোচালকের সঙ্গেই পালিয়ে গেছেন তার স্ত্রী।

ভারতের মধ্যপ্রদেশের ইন্দোরের ঘটনা। স্বামীর ব্যবসা রয়েছে। কোটি কোটি টাকার কারবার। বাড়ি থেকে ৫৩ লাখ টাকা হাতিয়েও নিলেন ওই নারী। পুলিশ তার এবং অটোচালকের খোঁজ করছে।

জানা গেছে, গত ১৩ অক্টোবর থেকে নিখোঁজ ছিলেন ওই নারী। সেদিনই থানায় গিয়ে সন্দেহের কথা বলেন ব্যবসায়ী স্বামী। টাকা লোপাটের অভিযোগও করেন।

কী থেকে হল সন্দেহ?‌ দীর্ঘদিন ধরেই অটো চালকের সঙ্গে স্ত্রীর যে কিছু সম্পর্ক রয়েছে, তা আঁচ করেছিলেন তিনি। প্রায়ই তরুণীকে বাড়িতে নামাতে আসতেন ওই অটো চালক।

তদন্তে জানা গিয়েছে, চালকের নাম ইমরান। তিনি ওই নারীর থেকে প্রায় ১৩ বছরের ছোট। ইমরানের এক বন্ধুর বাড়ি থেকে ৩৩ লাখ টাকা উদ্ধার করা হয়েছে।

যদিও ইমরান ও ওই নারীর খোঁজ মেলেনি। তাদের খোঁজে বিভিন্ন জায়গায় তল্লাশি চালানো হয়েছে। মোবাইলের লোকেশন দেখে তাদের সন্ধান করার চেষ্টা চালাচ্ছেন পুলিশকর্মীরা।

পাবনায় পাতানো ভাইয়ের বাসায় আপত্তিকর অবস্থায় ধরা প্রবাসীর স্ত্রী : গণধোলাই

পাবনার আমিনপুরে এক ছাত্রদল নেতা প্রবাসীর স্ত্রীর সঙ্গে আপ;ত্তিকর অবস্থা;য় ধরা পড়েছেন। এ ঘটনায় উ;ত্তেজিত জনতা ওই ছাত্রদল নেতাকে গণ;ধো;লাই দিয়েছে।

সোমবার উপজেলার রূপপুর ইউনিয়নের ভূয়া পাড়া এলাকায় এ ঘটনাটি ঘটে। গণধোলাইয়ের শি;কার মো. মাসুদ রানা (৩২) পাবনা জেলা ছাত্রদলের সহসভাপতি ও বেড়া উপজেলা ছাত্রদলের সাবেক যুগ্ম-আহ্বায়ক।

এলাকাবাসীর বরাত দিয়ে পুলিশ জানায়, কিছুদিন ধরে রূপপুর ইউনিয়নের এক প্র;বাসীর স্ত্রীর সঙ্গে মাসুদ রানার প;রকীয়া প্রেমের সম্পর্ক চলছিল।

সোমবার দুপুরে ওই গৃহবধূর এক পাতানো ভাইয়ের বাসা থেকে তাদের দুজনকে আপ;ত্তিকর অবস্থায়; আ;টক করে স্থানীয় জনতা। পরে মাসুদ রানা উ;ত্তেজি;ত জনতার গ;ণ;ধোলাই;য়ের শি;কার হন।

গণ;ধো;লাই;য়ের একপ;র্যায়ে ঘট;নাস্থল থেকে দৌড়ে পা;লান মাসুদ। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে ওই গৃহবধূকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আমিনপুর থানায় নিয়ে যায়।

আমিনপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) রওশন আলী জানান, আটক নারীকে উ;ত্তেজিত জ;নতার রো;ষানল থেকে রক্ষা করতে পুলিশি হেফাজতে নেওয়া হয়।

রাতে জিজ্ঞাসাবাদ শেষে তাকে পরিবারের জিম্মায় ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। এদিকে, এলাকায় অনৈ;তি;ক ক;র্মকাণ্ডে জড়িত ছাত্রদল নেতা মাসুদ রানা এবং ওই গৃহবধূর দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়েছে এলাকাবাসী। জেলা ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক কামরুজ্জামান প্রিন্স মাসুদের দলীয় পরিচয় নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, এ বিষয়ে আমরা কোনো অভিযোগ পাইনি। সামাজিক মাধ্যমে বিষয়টি জেনেছি। তদন্ত সাপেক্ষে দলীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Check Also

টোল দিতে হবে না পোস্তগোলা-ধলেশ্বরী-আড়িয়াল খাঁ সেতুতে

আগামী ১লা জুলাই থেকে পোস্তগোলা-ধলেশ্বরী-আড়িয়াল খাঁ সেতুতে টোল দিতে হবে না বলে জানিয়েছেন সড়ক ও …

Leave a Reply

Your email address will not be published.