শিবপুরে পুকুরে ভে’সে উঠল নিখোঁজ ব্যক্তির লা’শ

নরসিংদীর শিবপুরে নিখোঁজের পরদিন পুকুরে ভেসে ওঠা এক ব্যক্তির লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। বুধবার বিকেল পাঁচটার দিকে শিবপুরের পুটিয়া ইউনিয়নের পুটিয়া গ্রাম থেকে তাঁর লাশ উদ্ধার করা হয়। নিহত ওই ব্যক্তির নাম প্রাণতোষ দেবনাথ (৫০)। তিনি শিবপুরের পুটিয়া ইউনিয়নের পুটিয়া গ্রামের নৃপতি দেবনাথের ছেলে। পরিবারের সদস্যরা বলছেন, গত তিন মাস প্রাণতোষ মানসিক ভারসাম্যহীন আচরণ করছিলেন।

পুলিশ ও স্থানীয় ব্যক্তিরা জানান, বুধবার বিকেলে ওই পুকুরপাড়ের কাছ দিয়ে গরু নিয়ে বাড়ি ফিরছিলেন স্থানীয় এক নারী। তিনি পুকুরটিতে ভাসমান অবস্থায় একটি লাশ দেখতে পান। তাঁর মাধ্যমেই পরিবারের লোকজন ও স্থানীয় ব্যক্তিরা এই খবর জানতে পেরে ঘটনাস্থলে জড়ো হন এবং লাশ শনাক্ত করেন। স্থানীয় লোকজনের কাছে খবর পেয়ে শিবপুর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) অরুণ কুমার বসাক ঘটনাস্থলে গিয়ে ওই পুকুর থেকে তাঁর লাশ উদ্ধার করেন। পরে সন্ধ্যায় তাঁর লাশ ময়নাতদন্তের জন্য নরসিংদী সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়।

পরিবারের সদস্যরা বলছেন, গত তিন মাস প্রাণতোষ মানসিক ভারসাম্যহীন আচরণ করছিলেন।

নিহত প্রাণতোষের ছোট ভাই উৎপল দেবনাথ বলেন, প্রাণতোষ দেবনাথ মৌলভীবাজার শহরে কাপড়ের ব্যবসা করতেন। তিন মাস ধরে তাঁকে মানসিক ভারসাম্যহীন আচরণ করতে দেখা যাচ্ছিল। দুর্গাপূজার কয়েক দিন আগে প্রাণতোষ পৈতৃক ভিটা শিবপুরের পুটিয়ায় আসেন। মঙ্গলবার বিকেলের পর থেকে তাঁকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছিল না। পুরো এলাকা ও স্বজনদের বাড়িঘরে খোঁজাখুঁজি করে তাঁকে না পেয়ে পরিবারের সদস্যরা ফেসবুকে স্ট্যাটাস দেন। তবু তাঁর খোঁজ পাওয়া যাচ্ছিল না। আজ তাঁর লাশ পুকুরে ভাসতে দেখা যায়।

এসআই অরুণ কুমার বসাক জানান, পুকুরে ভেসে ওঠা ওই লাশের শরীরে আঘাতের কোনো চিহ্ন পাওয়া যায়নি। ঠিক কী ঘটেছিল, তা বোঝা যাচ্ছে না। তিনি ওই পুকুরে কোনোভাবে পড়ে গিয়েছিলেন, নাকি কেউ ফেলে দিয়েছেন, ময়নাতদন্তের প্রতিবেদন হাতে পেলে এ বিষয়ে বিস্তারিত বলা যাবে।

Check Also

গৃহবধূকে নিয়ে লাপাত্তা স্কুলছাত্র

রাজশাহীর তানোরে গৃহবধূকে নিয়ে পালিয়েছে নবম শ্রেণীর এক ছাত্র। ঘটনার এক সপ্তাহ পেরিয়ে গেলেও সন্ধান …

Leave a Reply

Your email address will not be published.