Breaking News

তদন্ত করতে গিয়ে গো’য়ালঘরে না’রীর সা’থে আপ’ত্তিকর অবস্থায় ধরা পড়েন পুলিশের এএসআই

পারিবারিক মামলার এক বাদীর সঙ্গে আপত্তিকর অবস্থায় স্থানীয়দের হাতে আটক হয়েছেন তোফাজ্জল হোসেন নামে এক পুলিশের সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই)।

শুক্রবার (২৯ অক্টোবর) রাত সাড়ে ১০টার দিকে গাইবান্ধার জেলার সুন্দরগঞ্জ উপজেলার ছড়ারপাতা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। আটক এএসআই তোফাজ্জল হোসেন উপজেলার কঞ্চিবাড়ি পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রে কর্মরত রয়েছেন।

 

স্থানীয় সূত্র জানা যায়, রাতে ওই এএসআই ছড়ারপাতা গ্রামের এক সৌদি প্রবাসীর বাড়িতে আসেন। পরে গোয়ালঘরে আপত্তিকর অবস্থায় ওই বাড়ির এক নারীর সঙ্গে তাকে দেখে ফেলেন প্রতিবেশী।

বিষয়টি জানাজানি হলে উত্তেজিত জনতা তোফাজ্জলকে আটক করে বাড়ির উঠানের একটি আম গাছের সঙ্গে দড়ি দিয়ে বেঁধে রাখে। পরে খবর দেয়া হয় পুলিশে। খবর পেয়ে সুন্দরগঞ্জ থানা পুলিশ ও কঞ্চিবাড়ি পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের পুলিশ ঘটনাস্থলে যান।

ওই নারীর এক প্রতিবেশী নাম প্রকাশ না করার শর্তে জানান, কিছুদিন আগে ওই নারীর স্বামীর সঙ্গে তার ভাইয়ের জমি নিয়ে বিরোধ দেখা দেয়। পরে ওই নারী বাদী হয়ে থানায় মামলা করেন ভাসুরের বিরুদ্ধে। ওই মামলাটির তদন্তভার পড়ে এএসআই তোফাজ্জল হোসেনের কাছে। পরবর্তীতে তদন্তে গিয়ে ওই প্রবাসীর স্ত্রীর সঙ্গে সখ্য গড়েন তিনি।

তবে ওই নারীর দাবি, তোফাজ্জল হোসেনের সঙ্গে তার কোনো সখ্য বা প্রেমঘটিত কোনো বিষয় নেই। পূর্ব পরিচিতির কারণে রাতে তাকে বাসায় দাওয়াত করেছিলেন তিনি।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন কঞ্চিবাড়ি পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ মানষ রঞ্জন। তিনি বলেন, আমরা খবর পাওয়ার পর ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠিয়েছি।

সুন্দরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবদুল্লাহিল জামান বলেন, অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত শেষে বিস্তারিত জানানো হবে। সত্যতা পাওয়া গেলে তোফাজ্জলের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Check Also

কলেজ অধ্যক্ষকে নেতার চড় মারার মুহূর্ত ধরা পড়ল ক্যামেরায়

কলেজ অধ্যক্ষকে চড় মারছিলেন এক নেতা। একবার নয়, একাধিকবার। আর সেই মুহূর্তটি ধরা পড়েছে ক্যামেরায়। …

Leave a Reply

Your email address will not be published.