Breaking News

কক্সবাজারেও মসজিদের কোরআন চুরি করেন সেই ইকবাল, বেরিয়ে এলো আরও চাঞ্চল্যকর তথ্য

কুমিল্লায় ধর্ম অবমাননায় প্রধান অভিযুক্ত ইকবাল হোসেন কক্সবাজারের চকরিয়ার একটি মসজিদ থেকেও পবিত্র কোরআন শরীফ চুরি করেছিলেন। সেখানে মসজিদের খাদেম ও স্থানীয়রা তাকে গভীর রাতে আটক করেন।

ওই ঘটনার মোবাইলে ধারণ করা একটি ভিডিও এসেছে সময় সংবাদের কাছে। কী কারণে কোরআন শরীফটি তিনি নিয়েছিলেন তা খতিয়ে দেখছে পুলিশ। ১৭ অক্টোবর রাত দুইটা ৩০ মিনিট।

কক্সবাজারের চকরিয়ার সবুজ পাহাড় মসজিদের খাদেম আজান শুনতে পান। ঘুম ভেঙে তিনি দেখতে পান মসজিদের মিনারে উঠে আজান দিচ্ছেন অজ্ঞাত এক ব্যক্তি। সন্দেহভাজন ওই ব্যক্তিকে আটকের পর

তার কাছে গামছায় পেঁচানো একটি কোরআন শরীফ দেখতে পান। চোর ভেবে তাকে আটক করে রাখা হয়। পরদিন সকালে তাকে স্থানীয়দের হাতে তুলে দেওয়া হয়। স্থানীয়দের প্রশ্নের মুখে

সন্দেহভাজন ব্যক্তি জানান তার বাড়ি কুমিল্লায়। নাম ইকবাল হোসেন। পুরো বিষয়টি তারা মোবাইলে ভিডিও ধারণ করেন। ইকবাল জানান, ১৬ অক্টোবর ফজরের নামাজের সময় তিনি চকরিয়া রোডের একটি মসজিদে প্রবেশ করেন।

মসজিদের অজুখানায় থাকা একটি গামছা দিয়ে তিনি পবিত্র কোরআন শরীফটি পেঁচিয়ে বের হয়ে যান। সবুজ পাহাড় মসজিদের খাদেম ও স্থানীয়রা ইকবালের পরিচয় ও কোরআন শরীফটি তাদের নয় নিশ্চিত হয়ে গামছা ও কোরআন শরীফটি রেখে

তাকে একটি পুরাতন জামা দিয়ে ছেড়ে দেয়। কক্সবাজারে আটকের সময় ওই জামাটি তার গায়ে ছিল। রিমান্ডে থাকা ইকবাল হোসেন চকরিয়ার মসজিদ থেকে কোরআন নেওয়ার কথা স্বীকার করেছেন। চুরি করা কোরআন শরীফটি কোনো মন্দিরে রাখার পরিকল্পনা ছিল কিনা তা জানার চেষ্টা করছে পুলিশ।

Check Also

রাজবাড়ীতে চতুর্থ শ্রেণির ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগ

রাজবাড়ী সদর উপজেলায় তিন ব্যক্তির বিরুদ্ধে পর্নো ভিডিও দেখিয়ে চতুর্থ শ্রেণির এক ছাত্রীকে একাধিকবার ধর্ষণের …

Leave a Reply

Your email address will not be published.