Breaking News

স্ত্রী’র বাধায় নিজের বাড়ি ঢুকতে পারছেন না স্বামী, থানায় জিডি

প্রাণে মেরে ফেলার হুমকি ও নিজের বাড়িতে প্রবেশ করতে না দেওয়ায় নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জে এক স্বামী জিডি করেছেন তার স্ত্রীর বিরুদ্ধে। শনিবার বিকালে সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় এ জিডি এন্ট্রি করেন সিদ্ধিরগঞ্জের মিজমিজি আব্দুল আলী পুল এলাকার দেলোয়ার হোসেন নামে এক ব্যক্তি।

জিডিতে তিনি উল্লেখ করেন, তার স্ত্রী শামিমা আক্তার আফরিনের (৩২) সঙ্গে ১৩ বছর পূর্বে পারিবারিকভাবে বিবাহ হয়। তাদের এক ছেলেসন্তান রয়েছে। গত ৫ বছর যাবত তার স্ত্রী নিজের ইচ্ছামতো চলাফেরা করছে। স্ত্রীর সঙ্গে বিভিন্ন পুরুষের অনৈতিক সম্পর্ক রয়েছে বলে উল্লেখ করা হয় ওই জিডিতে।

 

এসব কাজে বাধা দিলে স্বামী দেলোয়ারের সঙ্গে খারাপ আচরণ করার পাশাপাশি শারীরিক নির্যাতন করে আসছিল। সম্প্রতি স্বামী দেলোয়ার হোসেনকে প্রাণনাশের হুমকিও দিচ্ছেন তার স্ত্রী।

এমনকি তাকে তার বাড়িতেও প্রবেশ করতে দিচ্ছেন না। এতে ভীতসন্ত্রস্ত হয়ে স্বামী দেলোয়ার হোসেন স্ত্রী শামীমা আক্তার আফরিনের বিরুদ্ধে সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় শনিবার বিকালে একটি সাধারণ ডায়েরি করেন।

এ ব্যাপারে সিদ্ধিরগঞ্জ থানার এএসআই সোহেল রেজা বলেন, দেলোয়ার হোসেন নামের এক ব্যক্তি থানায় এসে প্রাণনাশের হুমকি ও নির্যাতনের অভিযোগ এনে জিডি এন্ট্রি করেছেন। এ ব্যাপারে তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

আরো পড়ুনঃ স্ত্রীর আপত্তিকর ছবি ভাইরাল করল স্বামী

তালাক দেওয়ায় রাজশাহীতে স্ত্রীর আপত্তিকর ছবি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল করেছেন স্বামী। অভিযোগ পেয়ে পুলিশ রবিউল ইসলাম ওরফে রবি (৩০) নামের এক ব্যক্তিকে গ্রেফতার করেছে। রোববার রাতে রাজশাহী মহানগর পুলিশের (আরএমপি) সাইবার ক্রাইম ইউনিটের সহায়তায় দামকুড়া থানা পুলিশ রবিউল ইসলাম ওরফে রবিকে গ্রেফতার করে। দামকুড়ার টিকর গ্রামে তার বাড়ি। তিনি সেনাবাহিনীর লেফটেন্যান্ট কর্নেল পরিচয় দিয়ে মানুষের সঙ্গে প্রতারণা করতেন।

সোমবার দুপুরে রাজশাহী মহানগর পুলিশের (আরএমপি) মুখপাত্র গোলাম রুহুল কুদ্দুস বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, রবিউল পাবনার সুজানগরের এক নারীর সঙ্গে ফেসবুকে বন্ধুত্ব গড়ে তোলেন। একপর্যায়ে গড়ে তোলেন প্রেমের সম্পর্ক। তারপর কৌশলে ওই নারীকে দিয়ে তার স্বামীকে তালাক দেওয়ান। এরপর গত ১৩ আগস্ট রবিউল ওই নারীকে বিয়ে করেন। বিয়ের পর থেকেই গোপনে রবিউল তাদের অন্তরঙ্গ মুহূর্তের বিভিন্ন আপত্তিকর ছবি তুলে রাখেন।

ওই নারীর অভিযোগ, রবিউল প্রায়ই মোবাইল ফোনে লেফটেন্যান্ট কর্নেল পরিচয় দিয়ে বিভিন্ন সরকারি কর্মকর্তা ও সাধারণ মানুষের সাথে কথা বলতেন। তাদের সহযোগিতার নামে প্রতারণা করতেন। পাশাপাশি রবিউল তাকেও টাকার জন্য চাপ দিতে থাকেন। তখন তিনি বুঝতে পারেন, রবিউল আসলে একজন প্রতারক। তাই গত ১৪ সেপ্টেম্বর রবিউলকে তিনি তালাক দেন।

এতে ক্ষিপ্ত হয়ে রবিউল ওই নারীর নামেই একটি ফেসবুক অ্যাকাউন্ট খুলে তাদের অন্তরঙ্গ মুহূর্তের ছবি আত্মীয়স্বজনকে পাঠাতে শুরু করেন। টাকা না দিলে এসব কর্মকাণ্ড বন্ধ হবে না বলেও হুমকি দেন।

নিরুপায় হয়ে ওই নারী দামকুড়া থানায় একটি অভিযোগ করেন। এরপর সাইবার ক্রাইম ইউনিটের সহায়তায় পুলিশ রোববার রাতে রাজশাহী মহানগরীর কোর্ট স্টেশন এলাকা থেকে রবিউলকে গ্রেফতার করে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে প্রতারক রবিউল তার অপরাধের কথা স্বীকার করেছেন।

Check Also

কলেজ অধ্যক্ষকে নেতার চড় মারার মুহূর্ত ধরা পড়ল ক্যামেরায়

কলেজ অধ্যক্ষকে চড় মারছিলেন এক নেতা। একবার নয়, একাধিকবার। আর সেই মুহূর্তটি ধরা পড়েছে ক্যামেরায়। …

Leave a Reply

Your email address will not be published.