ফেসবুকে চাকরি পেলেন সিলেটের শাবিপ্রবির দুই শিক্ষার্থী

জনপ্রিয় সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং ও টেক্সট জায়ান্ট সাইট ফেসবুকে চাকরির সুযোগ পেয়েছেন সিলেটের শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (শাবিপ্রবি) কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের দুই শিক্ষার্থী।

 

চাকরির সুযোগ পাওয়া মওদুদ আহমেদ শাহরিয়ার ও এম. নাজিম উদ্দিন দুজনই বিশ্ববিদ্যালয়ের সিএসই বিভাগের ২০১৩-১৪ বর্ষের শিক্ষার্থী ছিলেন।

জানা যায়, চাকরির বিষয়টি ফেসবুক কর্তৃপক্ষ ইমেইলের মাধ্যমে নিশ্চিত করেছেন। মওদুদ আহমেদ শাহরিয়ার ও এম.নাজিম উদ্দিন দুজনই ইংল্যান্ডের ফেসবুকের ইউরোপিয়ান সদর দপ্তরে সফটওয়ার প্রকৌশলী হিসেবে যোগদান করবেন।

চলতি বছরের জুন মাসে ফেসবুক কর্তৃপক্ষ যোগাযোগ করেন তাদের সঙ্গে। বেশকিছু ধাপে ভাইভার মাধ্যমে দক্ষতা যাচাই প্রক্রিয়া করে ফেসবুকে যোগদানের জন্য তাদের নিয়োগের প্রস্তাবপত্র পাঠানো হয়। কোনো প্রকার জটিলতা না দেখা দিলে ২০২২ সালে ফেসবুকের এই দপ্তরে যোগদান করা হবে বলে জানিয়েছেন দুজনেই।

নিজের অনুভূতি জানিয়ে মওদুদ আহমেদ শাহরিয়ার বলেন, বিষয়টা আমার জন্য অবশ্যই খুশির খবর। ফেসবুকে বিশ্বের বিভিন্ন দেশের, বিভিন্ন সংস্কৃতির সফটওয়্যার প্রকৌশলীদের সঙ্গে কাজ করার অভিজ্ঞতা হবে। আশা করি এই অভিজ্ঞতা পরবর্তীতে আরও বড় কাজে সাহায্য করবে।

ছাত্র অবস্থায় বিশ্ববিদ্যালয়ে কম্পিটিটিভ প্রোগ্রামিংয়ের সঙ্গে যুক্ত ছিলাম, ওই সময় অর্জিত দক্ষতা ফেসবুকের ভাইভায় উত্তীর্ণ হতে সাহায্য করেছে। যথাযথ সহায়তা পেলে বাংলাদেশ থেকে আরও অনেক শিক্ষার্থী বিশ্বের বড় সফটওয়্যার কোম্পানিগুলোতে কাজ করার সুযোগ পাবে বলে মনে করি।

এম নাজিম উদ্দিন বলেন, আমি খুবই আনন্দিত গুগল এবং ফেসবুকের মতো পৃথিবীর টপ টেক জায়ান্ট থেকে অফার পেয়ে। সবকিছু বিবেচনায় আমি ফেসবুকের অফার গ্রহণ করেছি। প্রস্তুতির সময়টুকু মোটেই সহজ ছিল না। আমি ধন্যবাদ জানাতে চাই আমার মা-বাবা, বন্ধু, সিনিয়রসহ সবাইকে যারা আমাকে এই লম্বা প্রস্তুতির সময়টুকুতে সহযোগিতা করেছে, সাপোর্ট দিয়েছে।

সত্যিকার অর্থে, ২০১৪ সালে যখন প্রোগ্রামিং শুরু করি, তখন থেকেই স্বপ্ন ছিল পৃথিবীর টপক্লাস ইঞ্জিনিয়ারদের সঙ্গে টেক জায়ান্টে জব করার।

তিনি আরও বলেন, বিশ্ববিদ্যালয় শেষ হওয়ার পর থেকেই প্রস্তুতি নেওয়া শুরু করি গুগল, ফেসবুকের জন্য। প্রথম কয়েকবার আবেদন করে ব্যর্থও হই। কিন্তু সবসময় ই নিজের ওপর বিশ্বাস ছিল। অবশেষে এই বছর জুন মাসে ফেসবুক এবং গুগল থেকে যোগাযোগ করে তাদের প্রতিষ্ঠানগুলোতে ভাইভা দেওয়ার জন্য।

প্রায় দুই মাসব্যাপী ৬ ঘণ্টা করে ইন্টারভিউ নেয় গুগল এবং ফেসবুক। ইন্টারভিউ ভালো হওয়ার পর দুই কোম্পানি থেকেই অফার করে। সবকিছু বিবেচনায় আমি ফেসবুকের লন্ডন অফিসের অফার গ্রহণ করি। কোনো জটিলতা না থাকলে যোগদান আগামী ফেব্রুয়ারিতে।

Check Also

দর্জির শিরশ্ছেদ ‘ইসলাম-বিরোধী’, তীব্র নিন্দা জানালো জমিয়তে উলামায়ে হিন্দ

রাজস্থানের উদায়পুরে এক দর্জিকে মাথা কেটে হত্যা করেছে দুইজন। বিজেপির সাবেক মুখপাত্র নূপুর শর্মার পক্ষে …

Leave a Reply

Your email address will not be published.