শুধু কোহলি নয়, পুরো ভারত দলই ব্যর্থ

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে টানা দুই ম্যাচে হার ভারতের। পাকিস্তানের কাছে ১০ উইকেটে হারের পর কাল নিউজিল্যান্ডের কাছে বিরাট কোহলিরা হেরেছেন ৮ উইকেটে। যা পরিস্থিতি, তাতে ভারতের সেমিফাইনালে ওঠার রাস্তা এখন অনেকটাই দুর্গম হয়ে গেছে।

ভারতের এমন বিশ্বকাপ–লজ্জায় অধিনায়ক বিরাট কোহলিকে ঘিরে সমালোচনার ঝড় বইছে। ম্যাচ হারের পর কোহলির ফিল্ডিং সাজানো নিয়ে নেতিবাচক কথা উঠেছে। বরুণ চক্রবর্তী বোলিং করার সময় স্লিপে কোনো ফিল্ডার রাখেননি কোহলি। যে কারণে বড় শট না খেললেও সিঙ্গেলস নিয়ে রানের চাকা সহজেই চালু রেখেছিলেন নিউজিল্যান্ডের ব্যাটসম্যানেরা।

 

কিন্তু সব বিষয়ে শুধু কোহলিকে একা দোষ দিতে রাজি নন ভারতের সাবেক অধিনায়ক মোহাম্মদ আজহারউদ্দিন। পুরো দলই যে খারাপ করেছে, সেই কথাই বললেন টুইট করে, ‘বিরাট কোহলিকে সমালোচনা সহ্য করতে হচ্ছে। কিন্তু পুরো দল এবং কোচ ব্যর্থ হয়েছে। এখানে শুধু একজনকে দোষ দিয়ে কোনো লাভ নেই।’

নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে হঠাৎ করেই ব্যাটিং লাইনআপে পরিবর্তন আনে ভারত। আন্তর্জাতিক টুর্নামেন্টে অনভিজ্ঞ ইশান কিষানকে ওপেনিং করতে পাঠিয়েছিল ভারতের টিম ম্যানেজমেন্ট। রোহিত শর্মা ব্যাট করেছেন তিনে। আর বিরাট কোহলি চার নম্বরে ব্যাট করতে নামেন কাল। ভারতের সাবেক ওপেনার বীরেন্দর শেবাগ দলের এমন হতশ্রী ব্যাটিং দেখে হতাশ, ‘খুবই হতাশাজনক পারফরম্যান্স ভারতের।

 

নিউজিল্যান্ড দুর্দান্ত ক্রিকেট খেলেছে। ভারতীয় ক্রিকেটারদের শরীরী ভাষা একদমই ভালো ছিল না। ব্যাটসম্যানদের শট নির্বাচনেও ভুল ছিল। নিউজিল্যান্ডের কাছে হেরে গিয়ে কার্যত আমরা টুর্নামেন্ট থেকেই ছিটকে গেলাম। এবার অনেক কিছু নিয়ে ভাবার সময় এসেছে।’

অবশ্য দুই ম্যাচ হারের পরও কাগজে–কলমে সেমিফাইনালের আশা টিকে রয়েছে ভারতের। সেক্ষেত্রে বাকি তিন ম্যাচে আফগানিস্তান, নামিবিয়া ও স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে জিততেই হবে ভারতকে। পাশাপাশি বড় ব্যবধানে জিততে হবে তাদের, যাতে রান রেটেও যথেষ্ট উন্নতি হয়। ভারতের রানরেট এখন –১.৬০৯।

Check Also

এবার ম্যারাডোনার ১৯৮৬ বিশ্বকাপ ফাইনালের জার্সিও নিলামে

রেকর্ডটার এখনো দুই মাসও হয়নি। ক্রীড়াঙ্গনের স্মারক বিক্রির সব রেকর্ড ভেঙে প্রায় ৯০ লাখ ডলারে …

Leave a Reply

Your email address will not be published.