পাঁচ মাসে পবিত্র কোরআন হিফজ করলেন স্কুল শিক্ষার্থী

কুরআনের প্রতিটি আয়াতে যেমন রয়েছে বিশ্বমানবতার হেদায়াত ও মুক্তির বারতা তেমনি কুরআন তিলাওয়াতে রয়েছে বিশ্বাসীদের জন্য অফুরান সওয়াব ও পুরস্কারের ঘোষণা। নতুন খবর হচ্ছে, মাত্র পাঁচ মাসে পবিত্র কোরআন মুখস্থ করে বিস্ময় সৃষ্টি করেছেন স্কুল শিক্ষার্থী নাদিয়া সুলতানা আজিজা।

করোনাকালীন অবসরকে কাজে লাগিয়ে সে কোরআন হিফজ করে। নাদিয়া চট্টগ্রামের বাঁশখালী উপজেলার পূর্ব ইলশা গ্রামের মাওলানা নুরুন্নবী আজিজীর মেয়ে। সে দারুল কারিম মাদরাসার মহিলা হিফজখানার ছাত্রী নাদিয়া সুলতানা আজিজা। সে বাঁশখালী পৌরসভার দারুল কারিম মহিলা মাদরাসা থেকে হিফজ সম্পন্ন করেছে।

স্থানীয় সূত্রগুলো জানায়, নাদিয়া একজন স্কুল শিক্ষার্থী। সে রায়ছটা প্রেমাশিয়া আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ে সপ্তম শ্রেণিতে পড়ে। করোনা মহামারির কারণে স্কুল বন্ধ হয়ে গেলে নাদিয়ার বাবা তাকে দারুল কারিম মাদরাসায় ভর্তি করিয়ে দেন। গত বছরের অক্টোবর মাসে হিফজখানায় ভর্তি হওয়ার পর স্বল্প সময়ে নাজেরা শেষ করে।

এরপর চলতি বছরের ৩০ মে তার হিফজের সবক শুরু হয়। মোট পাঁচ মাস (১৫০ দিন) তার হিফজ সম্পন্ন হয়। মাদরাসা কর্তৃপক্ষ জানায়, করোনাকালীন স্কুল বন্ধ থাকায় নাদিয়া সুলতানা আজিজা স্কুল থেকে এসে মাত্র পাঁচ মাসে হিফজ সম্পন্ন করেছে। গতকাল (১ নভেম্বর) সোমবার তার হিফজের সবক সম্পন্ন হয়।

পাঁচ মাস আগে বিগত ৩০ মে তার হিফজের সবক শুরু হয়েছিল। ১১ বছরের শিশু নাদিয়া স্কুলে এবার সপ্তম শ্রেণির শিক্ষার্থী। তারা মনে করেন, মাত্র পাঁচ মাসে একজন স্কুল শিক্ষার্থীর কোরআন হিফজ করার বিরল কৃতিত্ব অনেকের হৃদয়ে নাড়া দেবে। অনেকে সন্তানকে কোরআন হিফজ করতে উৎসাহ বোধ করবে।

Check Also

বন্যাদুর্গত মানুষের সহায়তায় ২ কোটি ২৮ লাখ টাকা দিল যুক্তরাষ্ট্র

দেশের বন্যাদুর্গত এলাকার মানুষের সহায়তা হিসেবে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের আন্তর্জাতিক উন্নয়ন সংস্থা (ইউএসএআইডি) জরুরিভাবে ২ কোটি …

Leave a Reply

Your email address will not be published.