দীর্ঘদিন করেন না সিনেমা, শুধুমাত্র বিজ্ঞাপনের কাজ করে কিভাবে বিলা’সবহুল জী’বন কাটাচ্ছেন করিশ্মা কা’পুর!

বলিউডের রুপোলি পর্দায় করিশ্মা কাপুর এখন নৈব নৈব চ করে টিকে আছেন। কোনো মুভিতে তাকে

দেখা যায় না এখন। একটা সময় মায়ের বিরুদ্ধে গিয়ে সিনেমা জগতে নেমেছিলেন করিশ্মা কাপুর।

১৯৯১ সালে, সতের বছর বয়সে অভিনয়ে আত্মপ্রকাশ ঘটে করিশ্মার। প্রেম কয়েদি দিয়ে শুরু অভিনয়।

এরপর একের পর এক ব্লকবাস্টার সিনেমা উপহার দেন তিনি। করিশ্মার অভিনীত বেশ কয়েকটি হিট

সিনেমা ছিল জিগর, আনাড়ি, রাজা বাবু, কুলি নং ওয়ান, রাজা হিন্দুস্থানী, দিল তো পাগল হ্যায় এর মতন বহু মুভি।

করিশ্মার ক্যারিয়ার যখন মধ্যগগনে, ঠিক তখনই তিনি বিয়ে করার সিদ্ধান্ত নেন। ২০০৩ এর দিকে বিয়ে করেন সঞ্জয় কাপুরকে। বিয়ের পর সংসার নিয়ে এতটাই ব্যাস্ত হয়ে যান যে তার কামব্যাক সেভাবে ধামাকা তৈরি করতে পারেনি। এদিকে বোন করিনা কাপুর ২০০০ সালেই বলিউডে পা রাখেন। ধীরে ধীরে করিনা তার অধ্যায় শুরু করতে থাকেন।

এদিকে বিয়ের কয়েক বছর পর থেকেই স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে দ্বন্দ্ব শুরু হয়। ২০০৫ সালে প্রথম মেয়ে সামায়রার জন্মের পর করিশ্মা ও সঞ্জয় আলাদা থাকতে শুরু করেন। এরপর ২০১০ সালে আবার তাঁরা মিলিত হন। সে বছরই জন্ম নেয় তাঁদের দ্বিতীয় সন্তান। কিন্তু এরপরেও সম্পর্ক টেকেনি। অবশেষে ২০১৪ সালের জুন মাসে পাকাপাকি ভাবে তাঁদের দাম্পত্য জীবনের অবসান ঘটে।

পরবর্তীতে বিয়ে করেননি করিশ্মা। যদিও অনেকের সঙ্গে প্রেমের গুঞ্জন এসেছিল একটা সময়, বর্তমানে একজন সিঙ্গেল মাদার। দুই সন্তান দেখেন তিনি এবং বোন করিনার সহযোগিতাও করেন। তাহলে করিশ্মা কিভাবে বিলাসবহুল জীবন যাপন করছেন? হাতে সিনেমা নেই কোনো। একাকী!

জানা যায় যে, করিশ্মা তার দুই সন্তানের ভরণপোষণ বাবদ ১৪ কোটি টাকা দাবি করেন এবং পেয়েও যান। নিজের জন্য ১০লাখ করে। এছাড়াও মডেলিং শো করেন এবং কিছু বিজ্ঞাপনে তাকে দেখা যায়। এই সব মিলিয়ে তার হতে ভালো অঙ্ক আসে। সঞ্জয় কাপুর থেকে যেই টাকা পান তা দিয়েও ভালো মত চলে যায়। এছাড়াও কাপুর খান দানের বৈবভ কিছু কম নয়। বাবা রণধীর কাপুর ও মা ববিতা যা রেখে যাচ্ছেন তার দুই ভাগ এই দুই বোনের মধ্যেই হবে পরবর্তীতে। সুতরাং দিব্যি চালিয়ে যাচ্ছেন বলিউডের সুপার হট অভিনেত্রী করিশ্মা কাপুর।

Check Also

সাড়ে পাঁচ ঘণ্টার বাবা

ঘটনাটা মাত্র সাড়ে পাঁচ ঘণ্টার। এই পাঁচ ঘণ্টার ঘটনা লিখতেই যখন এত শব্দ লাগল, তাহলে …

Leave a Reply

Your email address will not be published.