Breaking News

সব প্রার্থী জয়ী, যে কারণে নির্বাচন স্থ’গিত করলেন ইসি

শরীয়তপুর সদর উপজেলার চিতলিয়া ইউনিয়নে সব প্রার্থী বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হওয়ার পরিপ্রেক্ষিতে নির্বাচন স্থগিত করেছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)।

সোমবার (৮ নভেম্বর) বিকেলে ইসির নির্বাচন ব্যবস্থাপনা শাখার উপ-সচিব আতিয়ার রহমানের স্বাক্ষরিত একটি চিঠি পাঠানো হয়। এতে নির্বাচন স্থগিতের বিষয়টি জানানো হয়। যদিও চিঠিটি এখনও হাতে এসে পৌঁছায়নি বলে জানিয়েছেন জেলা নির্বাচন অফিসার জাহিদ হাসান।

জেলা নির্বাচন কার্যালয় সূত্র জানায়, সদর উপজেলার চিতলিয়া ইউনিয়নে দ্বিতীয় ধাপে আগামী ১১ নভেম্বর ভোট হওয়ার কথা ছিল। এ ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে ৩ জন, সদস্য পদে ৪৮ জন এবং সংরক্ষিত নারী সদস্য পদে মনোনয়নপত্র দাখিল করেন ১২ জন।

যাচাই-বাছাই শেষে ২৬ অক্টোবর তাদের মনোনয়ন বৈধ ঘোষণা করে ইসি। ২৭ অক্টোবর প্রতীক আনতে গেলে রিটার্নিং কর্মকর্তা প্রার্থীদের জানান, ‘মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করা হয়েছে’।

যদিও ওই দিন কমপক্ষে ৩০ জন প্রার্থী ঢাকা পোস্টকে জানান, তারা মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করেননি। এ ঘটনা তদন্তে একটি কমিটি গঠন করে ইসি। নির্বাচন কমিশনের যুগ্ম সচিব (আইন) মো. মাহাবুবার রহমান ও কমিশনের

জ্যেষ্ঠ সহকারী সচিব মো. আবু ইব্রাহীম গত ৩ নভেম্বর ও ৪ নভেম্বর শরীয়তপুরে তদন্ত শেষ করেন। তবে তদন্তে কী পাওয়া গেছে এবং কী কারণে নির্বাচন স্থগিত করা হয়েছে এ বিষয়ে এখনো কোনো তথ্য জানা যায়নি।

জেলা নির্বাচন অফিসার জাহিদ হাসান ঢাকা পোস্টকে বলেন, চিতলিয়া ইউনিয়নের সকল প্রার্থী বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জয়ী হওয়ায় আজ বিকেলে ইসি নির্বাচন ব্যবস্থাপনা শাখার উপ-সচিব আমাকে ফোন করে জানান, ওখানকার নির্বাচন স্থগিত থাকবে। তবে এই সংক্রান্ত চিঠি এখনও হাতে পাইনি, আগামীকাল পাব। বিষয়টি রিটার্নিং কর্মকর্তাকে জানানো হয়েছে।

Check Also

বন্যায় না খেয়ে, বিনা চিকিৎসায় কারও মৃত্যু হয়নি: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেছেন, বন্যায় না খেয়ে কিংবা বিনা চিকিৎসায় কারও মৃত্যু হয়নি, এটাই বড় …

Leave a Reply

Your email address will not be published.