মঠবাড়িয়ায় ক্লিনিকের বিল ১২ হাজার, পরিশোধ করতে ন’ব’জা’তক বিক্রির চেষ্টা!

পিরোজপুর প্রতিনিধি:  পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় হাসপাতালের বি’ল পরিশোধ করতে না পেরে স’ন্তা’নকে বিক্রি করে দেওয়ার চেষ্টা করেন মা-বাবা। মঙ্গলবার (৯ নভেম্বর) বিকেলে শহরের একটি বেসরকারি ক্লিনিকে এ ঘটনা ঘটে। বিষয়টি পুলিশ জানতে পেরে সেই নবজাতককে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে। পরে পু’লিশ ক্লিনিকের বিল পরিশোদের ব্যবস্থা করে শি’শুটিকে বাবা-মায়ের কাছে ফিরিয়ে দেয়।

হাসপাতাল ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার দাউদখালী ইউনিয়নের হারজি নলবুনিয়া গ্রামের বাসিন্দা নুর নবী স্ত্রী আমেনা আক্তারকে সোমবার (৮ নভেম্বর) হাসপাতালে ভর্তি করেন। পরদিন সেখানে অস্ত্রোপচারে ছেলে সন্তানের জন্ম হয়। এতে তাদের চিকিৎসা ও ওষুধ বাবদ বিল আসে ১২ হাজার টাকা। এ বিল দিতে নবজাতকের বাবার পক্ষে সম্ভব না হওয়ায় তারা বাধ্য হয়ে নবজাতক সন্তানকে বিক্রির উদ্যোগ নেন।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (মঠবাড়িয়া সার্কেল) মোহাম্মদ ইব্রাহীম বিষয়টি জানতে পেরে থানার ‘কুইক রেসপন্স টিম’কে দ্রুত ক্লিনিকে পাঠায়। সেখানে নবজাতককে পিতার সাধ্য অনুযায়ী হাসপাতালের বিল পরিশোধ করে শিশুটিকে তার মায়ের কোলে ফিরিয়ে দেওয়া হয়।

নুর নবী জানান, তিনি গ্রামে কৃষিকাজ করেন। তার স্ত্রীকে বাড়িতে স্বাভাবিক ডেলিভারি করানোর জন্য চেষ্টা চালানো হয়। পরে আরো অসুস্থ হয়ে পড়লে বাধ্য হয়ে হাসপাতালে আসতে হয়েছে।

তিনি বলেন, ‘১২ হাজার টাকা ক্লিনিক বিল দেওয়ার মতো সাধ্য আমার ছিল না। সন্তানকে ফেরত পেয়ে আমি খুশি।’

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (মঠবাড়িয়া সার্কেল) মোহাম্মদ ইব্রাহীম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, টাকার অভাবে হাসপাতালের বিল পরিশোধ করতে পারছিলেন না ওই দম্পতি। পরে তাঁরা বাধ্য হয়ে সন্তান বিক্রি করে দেওয়ার চেষ্টা করে। নবজাতককে মা-বাবার কাছে ফিরিয়ে দেওয়া হয়েছে।

Check Also

কলেজ অধ্যক্ষকে নেতার চড় মারার মুহূর্ত ধরা পড়ল ক্যামেরায়

কলেজ অধ্যক্ষকে চড় মারছিলেন এক নেতা। একবার নয়, একাধিকবার। আর সেই মুহূর্তটি ধরা পড়েছে ক্যামেরায়। …

Leave a Reply

Your email address will not be published.