Breaking News

হঠাৎ এখানে-ওখানে জ্ব’লে উঠছে আ’গুন, আ’তঙ্কে এলা’কাবাসী

বরগুনা সদর উপজেলা ঢলুয়া গ্রামে হঠাৎ এখানে ওখানে আগুন জ্বলে উঠছে। কিন্তু কেউ জানেন না কী কারণে এ আগুন জ্বলছে। এ ঘটনায় বেশ কিছু বাসায় আগুন লেগেই চলেছে। হঠাৎ অলৌকিক এমন আগুনে এলাকায় আতঙ্ক বিরাজ করছে। 

এমন অদ্ভুত আগুনের কারণে কাজ ফেলে দিন-রাত বাড়ি পাহারায় ব্যস্ত পরিবারের পুরুষরা। অনেকেই সন্তানদের পাঠিয়ে দিয়েছেন স্বজনদের বাড়িতে। হঠাৎ করে লাগা এমন অলৌকিক আগুন নিয়ন্ত্রণ করতে না পারায় দুশ্চিন্তা নিয়ে দিন পার করছেন ঢলুয়া এলাকাবাসী।

 

স্থানীয়রা জানান, এলাকায় এক মাস আগে প্রথম আগুনের সূত্রপাত হয়। পরে সেই আগুন নিয়ন্ত্রণে আনা হলেও পরের দিন আবারও গ্রামের ৮টি বাড়িতে অলৌকিকভাবে আগুন লাগে। এরপর থেকে প্রতিদিনই গ্রামটিতে নিয়মিত আগুন লাগার ঘটনা ঘটছে। তবে কীভাবে এই আগুন লাগছে তা কেউই বলতে পারছেন না। আগুন আতঙ্কে দিন পার করছেন ওই গ্রামের শতাধিক পরিবার।

ভুক্তভোগী রিপন, সেন্টু, মনসুর আলীসহ এলাকাবাসীদের তথ্যমতে, প্রায় একমাস ধরে বাড়ির এখানে সেখানে হঠাৎ করে আগুন লেগে যাচ্ছে। প্রতিদিন ৫ থেকে ১০ বারের মতো আগুন লাগে। কিন্তু কীভাবে এ আগুন ধরছে কেউ বলতে পারছি না। আগুনের ভয়ে পরিবারের স্বজনদের বাসায় একা রেখে কোথাও যেতেও ভয় লাগছে। যদিও প্রথমে আমরা ভেবেছিলাম হয়তো কেউ আগুন ধরিয়ে দিচ্ছে। তাই এলাকাবাসীরা পাহারা বসায়। পরে দেখি কেউ আগুন দিচ্ছে না, এমনি এমনিতেই আগুন লাগছে। আগুনে কখনো কাপড় পুড়ছে, কখনোবা ঘরের জিনিসপত্র। আগুন নেভাতে গিয়ে অনেকেই হাত পা পুড়িয়ে ফেলছেন, এনিয়ে এখন আমরা অনেক আতঙ্কে আছি।

 

গ্রামের ভুক্তভোগী বেশ কয়েকজন মহিলারা জানান, প্রতিদিন আগুন লাগায় বাড়িতে থাকা আমাদের জন্য হুমকি হয়ে দাঁড়িয়েছে। কেউ কেউ হাত পা পুড়িয়ে ফেলছে। না জানি কখন কার বড় কোনো ক্ষতি হয়ে যায়। এমন ভাবে কেন আগুন লাগছে তার সঠিক সমাধান করা হলে আমাদের খুব উপকার হবে।

স্থানীয় আলিয়া মাদ্রাসার বিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষক মাহবুবুর রহমান, অনেক ক্ষেত্রে এমন বিষয়কে স্থানীয়রা ভৌতিক দাবী করলেও এর সত্যতা পাওয়া যায় না। তবে মিথেন গ্যাসের পরিমাণ বেড়ে গিয়ে গ্রামে এমনটা হতে পারে। আবার ইথেন, প্রোপেন বা বিউটেন গ্যাসও হতে পারে। পরীক্ষা-নিরীক্ষায় এর সত্যতা পাওয়া যেতে পারে।

ইতোমধ্যে এলাকাটি পরিদর্শন করছেন বরগুনা ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের সদস্যরা। ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন ম্যানেজার বদিউজ্জামান বলেন, হঠাৎ করে এমন আগুন লাগা নতুন নয়। দেশের অনেক স্থানেই প্রায়ই এমন ঘটনা শোনা যায়। স্থানীয়রা এটাকে ভৌতিক বলে মনে করে। ভৌতিক ব্যাপার হতেও পারে। যাই হোক অলৌকিক এমন ঘটনায় যাতে কারো কোনো ক্ষতি না হয় সেজন্য আমরা সজাগ আছি।

এদিকে বিষয়টি অলৌকিক না অন্য কিছু তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন বরগুনার জেলা প্রশাসক হাবিবুর রহমান। তিনি বলেন, বিষয়টি শুনেছি। উপজেলা নির্বাহী অফিসারকে ঘটনা স্থান পরিদর্শন করতে বলা হয়েছে। ওখানে অলৌকিক ভাবে আগুন লাগছে নাকি অন্য কোনো বিষয় রয়েছে সেটি খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

Check Also

বন্যাদুর্গত মানুষের সহায়তায় ২ কোটি ২৮ লাখ টাকা দিল যুক্তরাষ্ট্র

দেশের বন্যাদুর্গত এলাকার মানুষের সহায়তা হিসেবে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের আন্তর্জাতিক উন্নয়ন সংস্থা (ইউএসএআইডি) জরুরিভাবে ২ কোটি …

Leave a Reply

Your email address will not be published.