ভক্তদের চুল বিক্রি করে যে মন্দিরের বার্ষিক আয় ২০০ কোটি টাকা

মাথা থেকে কাটানো চুলের অংশ আমাদের কাছে ফেলনা বস্তু ছাড়া কিছু নয়। কিন্তু শুনলে অবাক হতে হয়, ভারতের একটি মন্দির কর্তৃপক্ষ সে চুল বিক্রি করেই প্রতি বছর শতকোটি টাকা আয় করে। দেশটির অল্প্রব্দপ্রদেশের তিরুমালা ভেঙ্কটেশ্বর মন্দিরে প্রতিদিন অসংখ্য ভক্তের সমাগম ঘটে। পুণ্য লাভের আশায় নারী-পুরুষ নির্বিশেষে সেখানে তারা চুল কাটিয়ে নেন। সে চুল জমিয়ে রেখে বছর শেষে তা নিলামে তোলা হয়।








চুল বিক্রি থেকে ২০১৪-১৫ অর্থবছরে মন্দির কর্তৃপক্ষের আয় হয় ২৩২ কোটি টাকা। এ খাত থেকে প্রতি বছর তাদের আয় বাড়ছে। আগের পাঁচ অর্থবছরে চুল বিক্রি করে তারা আয় করে যথাক্রমে ১১১, ১১১, ১৮৯, ২৩৮ ও ২৭৭
কোটি টাকা।








এ মন্দির ব্যবস্থাপনায় রয়েছে তিরুমালা তিরুপাঠী দেবস্থানম ট্রাস্ট। বিশ্বে এটি দ্বিতীয় বৃহত্তম ধনী ধর্মীয় কর্তৃপক্ষ এবং তাদের পরিচালিত মন্দিরেই সর্বাধিক পুণ্যার্থীর আগমন ঘটে। ধর্মীয় ছাড়াও এটি নানা সামাজিক, সাংস্কৃতিক ও শিক্ষামূলক কার্যক্রম পরিচালনা করে।








বলা হয়ে থাকে, পূর্ণাঙ্গ সরকারের মতোই এখানে সব ধরনের বিভাগ রয়েছে। মন্দিরের পাশাপাশি তাদের পরিচালনায় রয়েছে হাসপাতাল, বিশ্ববিদ্যালয়সহ আটটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, বাস সার্ভিস, উৎপাদন, প্রকৌশল, তথ্যপ্রযুক্তি বিভাগ ইত্যাদি। এ ট্রাস্টের প্রধান কার্যালয়ে মোট কর্মীর সংখ্যা ১৬ হাজার। তবে মন্দিরের বার্ষিক আয়ের দশ ভাগের এক ভাগই আসে ভক্তদের দান করা চুল থেকে।

প্রত্যন্ত পাহাড়ি অঞ্চলে অবস্থিত মন্দিরটিতে দৈনিক প্রায় ৭৫ হাজার ভক্তের আগমণ ঘটে। বিষ্ণুর অবতার দেবতা বেঙ্কটেসশ্বরের কাছে মানত নিয়ে আসেন এই ভক্তরা। তবে ভক্তদের এই শ্রদ্ধা ও বিশ্বাসকে পুঁজি করেই চলছে নকল চুলের কয়েকশ কোটি টাকার বাণিজ্য। হলিউডের নামিদামি তারকারা এখানকার চুলের নিয়মিত গ্রাহক। বস্তুবাদী দুনিয়ার চাকচিক্য, ফ্যাশন আর ট্রেন্ডের যোগান দিয়ে চলেছে আধ্যাত্মিক প্রশান্তির আশায় অর্পিত পুণ্যার্থীদের চুল।

Check Also

পদ্মা সেতুতে দ্বিতীয় দিন টোল আদায় প্রায় ২ কোটি টাকা

পদ্মা সেতু খোলার পর দ্বিতীয় দিনে প্রায় দুই কোটি টাকার টোল আদায় হয়েছে। এ সময় …

Leave a Reply

Your email address will not be published.