নেইমারের চাওয়া, ব্রাজিলের ১০ নম্বর উঠুক রদ্রিগোর গায়ে

কাতার বিশ্বকাপে ব্রাজিলের ফরোয়ার্ড লাইনটা একটু ভেবে দেখুন—নেইমারের সঙ্গে রিয়াল মাদ্রিদের জুটি রদ্রিগো ও ভিনিসিয়ুস জুনিয়র। অসাধারণ এই ত্রয়ী ব্রাজিলকে কাতার থেকে কী এনে দিতে পারবে, এমন আলোচনা হচ্ছে ফুটবল বিশ্বে। একই সঙ্গে আরও একটা আলোচনা শোনা যাচ্ছে—এবারের বিশ্বকাপে বেশি আলো ছড়াবেন কোন তারকা?

সদ্য শেষ হওয়া মৌসুমে সুন্দর ফুটবলের আলোয় আলোকিত করেছেন ভিনিসিয়ুস। যখনই সুযোগ পেয়েছেন, ভালো খেলেছেন রদ্রিগোও। অন্যদিকে পিএসজিতে নেইমারের গত মৌসুমের অনেকটা সময়ই কেটেছে চোট আর ছন্দহীনতায়। এসব বিবেচনা করে অনেকেই মনে করেন ভিনিসিয়ুস জুনিয়রই হতে পারেন এবারের বিশ্বকাপে ব্রাজিলের সেরা খেলোয়াড়।

নেইমারের আলিঙ্গনে ভিনিসিয়ুস জুনিয়র
নেইমারের আলিঙ্গনে ভিনিসিয়ুস জুনিয়রফাইল ছবি
নেইমার অবশ্য অনেক আগে থেকেই বলে আসছেন, কাতার বিশ্বকাপটা নিজের রঙে রাঙাতে চান। সেটা বলার একটা কারণও আছে। তিনিই যে এর আগে ইঙ্গিত দিয়েছেন, ২০২২ বিশ্বকাপই হতে পারে তাঁর ক্যারিয়ারের শেষ বিশ্বকাপ। শেষটা তো শিরোপার রঙে রাঙাতে চাইবেনই।

কিন্তু বিশ্বকাপ শেষে যদি নেইমার জাতীয় দলকে বিদায় বলে দেন, ব্রাজিলের বিখ্যাত ১০ নম্বর জার্সিটা পরবেন কে? অনেকের কাছেই নেইমারের যোগ্য উত্তরসূরি ভিনিসিয়ুস। কিন্তু নেইমার তাঁর জার্সির যোগ্য উত্তরসূরি ভিনিসিয়ুসকে মনে করেন না। অন্তত রদ্রিগোর কথায় সেটাই মনে হবে।

মৌসুম শেষে ছুটি কাটাতে যাওয়া রদ্রিগোর কথা—নেইমার তাঁকেই ব্রাজিলের বিখ্যাত হলুদ জার্সির ১০ নম্বরের যোগ্য উত্তরসূরি মনে করেন। রদ্রিগোর কথা, ‘নেইমার আমাকে বলেছেন, “আমি জাতীয় দল ছাড়ার পথে এবং ১০ নম্বরটা তোমারই।”’

নেইমারের ১০ নম্বর জার্সির যোগ্য উত্তরসূরি কে হবেন—এ নিয়ে চলছে জল্পনাকল্পনা
নেইমারের ১০ নম্বর জার্সির যোগ্য উত্তরসূরি কে হবেন—এ নিয়ে চলছে জল্পনাকল্পনাফাইল ছবি
রিয়াল মাদ্রিদের হয়ে গত মৌসুমে সব ধরনের প্রতিযোগিতা মিলিয়ে ৪৯টি ম্যাচ খেলে ৯ গোল করেছেন রদ্রিগো, গোলে সহায়তা ১০টি। অন্যদিকে ভিনিসিয়ুস ৫২ ম্যাচ খেলে গোল করেছেন ২২টি, সতীর্থদের দিয়ে গোল করিয়েছেন ২০টি।

এরপরও নেইমার রদ্রিগোকেই ১০ নম্বরের যোগ্য উত্তরসূরি মনে করেন। অবশ্য এখন পর্যন্ত যত কোচের অধীনই খেলেছেন দুজন, সব কোচই ঠান্ডা মাথার জন্য রদ্রিগোর প্রশংসা করেছেন, বয়স অনুযায়ী নাকি অনেক বেশি পরিণত রদ্রিগো। নেইমার হয়তো দলের নেতৃত্ব এমন একজনের কাঁধেই দেখতে চাইছেন। রদ্রিগো তাই এমন কথা শুনে আবেগে ভেসে যাচ্ছেন, ‘আমি বুঝতে পারছিলাম না এর উত্তরে তাঁকে কী বলব। আমি একটু বিব্রতও হয়েছি।’

তবে নেইমারের কাছ থেকে এমন প্রশংসাসূচক কথা শুনে আকাশে উড়ছেন না রদ্রিগো। পা মাটিতেই রাখছেন ব্রাজিলিয়ান উইঙ্গার। নেইমারের এমন কথার উত্তরে তিনি বলেন, ‘আমি তাঁকে বলেছি, যেন আরও কিছুদিন জাতীয় দলে খেলেন। বলেছি যে আমি চাই না এখনই অবসর নিক। আমার কথা শুনে শুধু হেসেছেন।’

তবে রদ্রিগো যে ব্রাজিলের ১০ নম্বর জার্সির স্বপ্ন দেখেন না তেমন নয়। সেরা খেলোয়াড় হওয়ার স্বপ্ন তিনিও দেখেন। এ কারণেই রিয়ালের সাবেক কোচ জিনেদিন জিদানের বলা একটি কথা সব সময় মনে রাখেন। রদ্রিগোকে কী বলেছিলেন জিদান, সেটাও সবাইকে জানালেন রিয়ালের উঠতি তারকা, ‘জিদান বলেছিলেন যে একদিন আমি বিশ্বের সেরা ফুটবলার হতে পারি।’

Check Also

অ্যাথলেটদের সুযোগ-সুবিধা বাড়ানোর প্রতিশ্রুতি সেনাপ্রধানের

অলিম্পিক এসোসিয়েশনের সভাপতি হিসেবে বার্মিংহাম কমনওয়েলথ গেমসে এসেছেন বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর প্রধান এসএম সফিউদ্দিন আহমেদ। বৃহস্পতিবার …

Leave a Reply

Your email address will not be published.