মোবাইল নিয়ে স্বামী-স্ত্রীর ঝগড়ায় প্রাণ গেল গৃহবধূর

নোয়াখালীর দ্বীপ উপজেলা হাতিয়াতে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে মোবাইল নিয়ে ঝগড়ার জের ধরে গৃহবধূর মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনার পর থেকে স্বামী গা ঢাকা দিয়েছে। তবে নিহতের শ্বশুর ও শাশুড়িকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করে থানা হেফাজতে নিয়েছে পুলিশ। তাৎক্ষণিক পুলিশ এ হত্যাকাণ্ডের সুনির্দিষ্ট কোনো কারণ জানাতে পারেনি। নিহত গৃহবধূ মেরিনা আক্তার (২৫) উপজেলার ৮নং সোনাদিয়া ইউনিয়নের ২ নম্বর ওয়ার্ডের মাইজচরা গ্রামের মো. মহিউদ্দিনের স্ত্রী। জানা যায়, সোমবার সকাল সাড়ে ৭টার দিকে মহিউদ্দিনের সঙ্গে মোবাইলফোন নিয়ে তার স্ত্রী মেরিনার বাকবিতণ্ডা হয়। একপর্যায়ে মহিউদ্দিন কাঠের পিঁড়ি দিয়ে স্ত্রীর শরীরে একাধিকবার আঘাত করলে তিনি মাটিতে লুটিয়ে পড়েন। পরে পরিবারের অন্য সদস্যরা উদ্ধার করে হাতিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। হাতিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. নিজাম উদ্দিন বলেন, নিহত গৃহবধূর শরীরে কোনো আঘাতের চিহ্ন ছিল না। বিষপানে মৃত্যু হয়েছে বলেও অনুভূত হয়নি।

ময়নাতদন্তের রিপোর্ট হাতে পেলে এ বিষয়ে বিস্তারিত জানা যাবে। মঙ্গলবার হাতিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আমির হোসেন জানান, অভিযুক্ত স্বামীকে আটক করতে চেষ্টা চালাচ্ছে পুলিশ। ভিকটিমের পিতা ৪ জনের বিরুদ্ধে খুনের মামলা করলে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নিহতের শ্বশুর-শাশুড়িকে থানায় রাখা হয়েছে। মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট হাতে পেলে এ বিষয়ে আরও বিস্তারিত জানা যাবে। ওসি আরও জানায়, প্রাথমিক তদন্তে জানা যায় সোমবার সকালে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে মোবাইল নিয়ে ঝগড়ার কারণে স্বামী স্ত্রীকে চড়-থাপ্পড় দেয়। এরপর ওই গৃহবধূ ঘরে ঢুকে লিকুইড জাতীয় কিছু পান করে। পরে তাকে হাসপাতালে নেয়ার পথে সে মারা যায়।

Check Also

গান বাজিয়ে তালে তালে নেচে যুবককে অকথ্য নির্যাতন

নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁওয়ে পুলিশের সোর্স পরিচয়ে নিরীহ মানুষ জনকে মিউজিক বাজিয়ে গানের তালে তালে নেচে মধ্যযুগীয় …

Leave a Reply

Your email address will not be published.